Computer ram কি এবং RAM এর পূর্ণরূপ কি ? RAM এর প্রকারভেদ

কারণ সকলেই মনে করে র‍্যাম যত বেশি হবে ততো ভালো ভাবে কম্পিউটার, ল্যাপটপ বা স্মার্ট ফোনচলবে।কোন প্রকার হ্যাং হবে না। র‍্যাম এর গুরুত্ব বিবেচনা করে আজকের পোস্টে আমরা জানব RAM কি, RAM এর পূর্ণরূপ কি,  RAM এর প্রকারভেদ,  RAM এর  বৈশিষ্ট্য কি এবং RAM এর কাজ কি ইত্যাদি বিষয় নিয়ে।  তো চলুন শুরু করা যাক 

RAM কি? কম্পিউটার ram কি?

RAM হলো একটি হার্ডওয়্যার ডিভাইস। RAM এর পূর্ণরূপ হলোRandom Access Memory (র‌্যান্ডম এক্সেস মেমোরি)। অপর দিকে RAM কে বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন নামে ডাকা হয়ে থাকে যেমন System MemoryPrimary Memory বা Main Memory । এটি সাধারণত কম্পিউটারের মাদারবোর্ডে অবস্থান করে সিপিইউর অভ্যন্তরে অস্থায়ী মেমরি হিসাবে কাজ করে। 

এটি একটি কম্পিউটারের অস্থায়ী স্টোরেজ। RAM কে এক প্রকার অস্থির মেমোরিও বলা হয় কারন এটি কেবলমাত্র যখন পিসি চালু হয় তখন ডেটা ধরে রাখে এবং যখন পিসি বন্ধ করা হয় তখন সমস্ত ডাটা মুছে ফেলে। র‌্যাম এর মেমোরিকে গিগাবাইটে (GB) পরিমাপ করা হয়।

RAM এর পূর্নরুপ কি? 

RAM এর পূর্ণরূপ হলো: Random Access Memory.

 

 Computer RAM কি এবং RAM এর পূর্ণরূপ কি ?
Computer RAM কি এবং RAM এর পূর্ণরূপ কি ?

RAM এর প্রকারভেদ বা RAM কত প্রকার ও কি কি? 

আমরা জানি RAM এক ধরনের অস্থায়ী স্মৃতি বা মেমোরি যেখানে কম্পিউটারে ইনপুটকৃত বিভিন্ন তথ্য উপাত্ত জমা হয় এবং কম্পিউটার সেখান থেকে প্রয়োজন অনুযায়ী সকল তথ্যাদি সংগ্রহ করে কার্যক্রম সম্পাদন করে থাকে। RAM সাধারণত ০২ প্রকার। সেগুলি হলোঃ

  •   ডায়নামিক র‌্যাম  বা DRAM.
  •   স্ট্যাটিক র‌্যাম বা SRAM.

ডায়নামিক র‌্যাম বা DRAM. 

DRAM বা ডায়নামিক র‍্যাম মুলত কম্পিউটারের স্থায়ী মূল মেমোরি। DRAM  এর প্রত্যেকটি  সেল একটি সংহত সার্কিটের মাধ্যমে একটি ট্রানজিস্টার এবং ক্যাপাসিটর দ্বারা গঠিত এবং ক্যাপাসিটরে একটি ডেটা বিট সংরক্ষণ করা হয় ।  ট্রানজিস্টর সর্বদা ছোট পরিসরের ল্যাক করে থাকে যার ফলে  ট্রানজিস্টার পরিবর্তন হতে পারে না । কারণ এটার তথ্য একটি অংশে সংগ্রহীত থাকে।  আর এই কারণেই ডাটা গুলিকে জমা রাখতে DRAM কে প্রতি মিলিসেকেন্ডে রিফ্রেশ করতে হয়। 

স্ট্যাটিক র‌্যাম বা SRAM. 

SRAM মুলত চার থেকে ছয়টি  ট্রানজিস্টরের সমন্বয়ে গঠিত হয়। এটি মেমোরিতে ততক্ষণ পর্যন্ত ডেটা রাখে যতক্ষণ না DRAM এর বিপরীতে সিস্টেমে পাওয়ার সরবরাহ করা হয়, যা পর্যায়ক্রমে রিফ্রেশ করতে হয়। এই র‍্যাম DRAM এর থেকে অতি দ্রুত কাজ করে থাকে । SRAM ফাস্টার হলেও এটা অনেক ব্যয় বহুল ফলে এটা কম্পিউটারে ব্যবহার করা হয় কম । অপর দিকে DRAM এর ব্যয় SRAM থেকে অনেক কম হওয়ায় সকল কম্পিউটারে DRAM এর ব্যবহার বেশি হয়ে থাকে।

অন্য পোষ্ট ঃ ROM কি? ROM এর পূর্ণরূপ কি? ROM এর কাজ কি?

Ram কি ধরনের ডিভাইস

Ram যার ফুল ফর্ম হলো Random Access Memory যার বাংলা র‍্যান্ডম অ্যাক্সেস মেমোরি হলো কম্পিউটারের ডাটা উপাত্ত সংরক্ষনের মাধ্যম। র‍্যামকে ভোলাটাইল মেমোরিও বলা হয় কারণ এতে সংরক্ষিত তথ্য বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন হওয়ার পর আর সেভ থাকে না।

Ram এর বৈশিষ্ট্য কি?

কম্পিউটার সার্টডাউন দিলে বা বিদ্যুৎ চলে গেলে র‍্যাম এর থাকা সমস্ত ডেটা মুছে যায়। এই জন্য র‍্যামকে ভোলাটাইল মেমোরি (volatile memory) বলা হয়। এটি অন্যান্য মেমোরির তুলনায় অনেক বেশি ব্যয়বহুল। এটি সেকেন্ডারি মেমোরির চেয়ে অনেক দ্রুত গতি সম্পন্ন।

Computer RAM এর কাজ কি?

র‌্যাম এমন এক ধরনের মেমোরি যেখান থেকে ডাটা পড়া যায় এবং যেখানে ডাটা লেখাও যায়। কম্পিউটারের প্রসেসর র‌্যামের যে কোনো স্থান থেকে সরাসরি তথ্য কালেকশন করে কাজ করতে পারে বলে একে Random Access Memory বা সংক্ষেপে RAM (র‌্যাম) বলা হয়। কারণ কম্পিউটার অথবা স্মার্টফোন বন্ধ (Shut down) করলে র‌্যামের সকল ডাটা মুছে  যায় ।

উপরোক্ত আলোচনার মাধ্যমে RAM কি এবং RAM এর পূর্ণরূপ কি?  RAM এর প্রকারভেদ বা RAM কত প্রকার ও কি কি? RAM এর বৈশিষ্ট্য কি? RAM এর কাজ কি ইত্যাদি বিষয় গুলি নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়েছে।  আশা করি  এই  লেখনীতে আপনারা  RAM সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্যাদি জানতে পেরেছেন।এছাড়াও RAM নিয়ে যদি কোন বিষয় জানার আগ্রহ থাকে তাহলে কমেন্ট এর মাধ্যমে জানাতে পারেন। আমরা পরবর্তীতে চেষ্টা করব আপনাদের আগ্রহের বিষয়টি নিয়ে লিখতে।  ধন্যবাদ।।

আরো কিছু জানতে পড়ে আসতে পারেন:

 ১।   এন্টিভাইরাস কি
 ২।  কম্পিউটার কাকে বলে কত প্রকার ও কি কি
৩।  সফটওয়্যার কি, সফটওয়্যার এর কাজ কি
৪।  কম্পিউটারের জনক কে কেন তাকে জনক বলা হয়
৫।  কম্পিউটার দিয়ে কি কি কাজ করা যায়   

Leave a Comment