MS EXCEL কি? এক্সেলের কাজ কি

MS EXCEL কি? এক্সেলের কাজ কি ই বিষয়ে অনেকেরই ধারণা অতি নগণ্য। কম্পিউটার সম্পর্কে জানে কিন্তু মাইক্রোসফট এক্সেল এর নাম শুনেনি এমন মানুষ বোধহয় খুঁজে পাওয়া একটু দুষ্কর ব্যাপার। বিভিন্ন অফিসিয়াল কাজ, ব্যবসায়িক কাজ করার সময় হিসেব নিকেশ করতে হয়। একটি প্রতিষ্ঠান এর সব ধরনের লেনদেন এর তথ্য সংরক্ষণ করা, গণনা করার জন্য সর্বত্র ms এক্সেল এপ্লিকেশন ব্যবহার করা হয়ে থাকে। আপনার যদি মাইক্রোসফট এক্সেল জানা থাকে, তবে এটি আপনার সিভিতে অতিরিক্ত ভ্যালু তৈরি করবে যা এখন যেকোনো চাকরি পাওয়ার ক্ষেত্রে অনেক গুরুত্বপূর্ণ।

আজকের এই পোস্ট আপনাদের সাথে ms excel কি এবং মাইক্রোসফট এক্সেলের কাজ কি এসকল বিষয়ে একদম বিস্তারিত আলোচনা করবো।

MS EXCEL কি?

MS EXCEL কি

মাইক্রোসফট অফিস এপ্লিকেশনগুলির মাঝে ms excel বা মাইক্রোসফট এক্সেল একটি। এই এপ্লিকেশন দিয়ে স্প্রেডশীটের কাজ যেমন : অফিস বা ব্যবসায়ের আয়-ব্যয়ের হিসাব, সব ধরনের হিসেব, পরিসংখ্যান তৈরি এবং ডাটাবেজ তৈরি করা যায়। যা দিয়ে পরবর্তীতে ব্যবসায়ের যাবতীয় লেনদেন এর তথ্য যাচাই করা এবং ডাটা এনালাইসিস করা যায়।

সাধারণ হিসাব নিকাশের কাজ থেকে শুরু করে শিডিউল মেইনটেইন করা, কী করা যায় না এই স্প্রেডশিট সফটওয়্যারটি দিয়ে! মাইক্রোসফট এক্সেল দিয়ে ব্যাক্তিগত, পারিবারিক লেনদেন সহ প্রাতিষ্ঠানিক যেকোনো হিসেবের অতি ক্ষুদ্র হিসেব অনেক সূক্ষ্ম ভাবে করা সম্ভব। এই এপ্লিকেশনে এমন কিছু টুলস আছে, যা দিয়ে অনেক কাজ ড্রাগ এন্ড ড্রপ করে দ্রুত শেষ করা যায়।

মাইক্রোসফট এক্সেল দিয়ে স্প্রেডশীট তৈরি, অফিসিয়াল বিভিন্ন হিসেব করা এবং শিডিউল মেইনটেইন করতে পারলে এই অভিজ্ঞতা আপনাকে যেকোনো চাকরির ক্ষেত্রে কয়েক ধাপ এগিয়ে রাখবে। পূর্বে অফিসিয়াল যেকোনো হিসেব কাগজে বা রেজিষ্টারে সংরক্ষণ করা হতো। যা অনেক সময়সাপেক্ষ ব্যাপার। কিন্তু ms এক্সেল দিয়ে এসব কাজ এখন নিমিষেই করা যায়। তাই একাডেমিক থেকে কর্মক্ষেত্র, সব জায়গাতেই এম এস এক্সেল একটি গুরুত্বপূর্ণ স্কিল হিসেবে বিবেচিত হয়।

এক্সেলের কাজ কি?

পারিবারিক হিসাব, একাডেমিক হিসাব কিংবা প্রাতিষ্ঠানিক হিসাব, সর্বক্ষেত্রেই এক্সেলের ফিচারের জুড়ি মেলা ভার। মাইক্রোসফট এক্সেল দিয়ে স্প্রেডশীট তৈরি করে সব ধরনের হিসাব করা, ডাটাবেজ তৈরি করা এবং ডাটা এনালাইসিস করা যায়। একটি প্রতিষ্ঠান এর সকল লেনদেন এর হিসেব সংরক্ষণ করার সবথেকে দ্রুত এবং সহজ পদ্ধতি হচ্ছে মাইক্রোসফট এক্সেল

কয়েক দশক থেকে মাইক্রোসফট এক্সেল অফিসের বিভিন্ন হিসাব সংরক্ষণ করার জন্য গুরুত্বপূর্ণ একটি অফিস এপ্লিকেশন হিসেবে গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠেছে। এই সফটওয়্যারটির স্প্রেডশিটকে আমরা একটি বিরাট পৃষ্ঠা হিসেবে ধরতে পারি। এক্সেলে আপনি ইচ্ছে মত পৃষ্ঠা তৈরি করতে এবং সেগুলোতে তথ্য সংরক্ষণ করতে পারবেন। উদাহরণ স্বরূপ – একটি খাতায় কলম, রাবার ও ক্যালকুলেটরের সাহায্যে আমরা যা যা করতে পারে এক্সেল স্প্রেডশিটে আমরা তার চেয়েও বেশি এবং জটিল কাজ করতে পারি।

আরও পড়ুন – MS WORD কি? MS WORD এর কাজ কি

অফিসিয়াল বিভিন্ন লেনদেন করার সময় আগে থেকেই ক্যালকুলেটর ব্যবহার করা হতো। এত বেশি হিসেব মুখে মুখে করা সম্ভব নয়। কিন্তু, মাইক্রোসফট এক্সেল দিয়ে ক্যালকুলেটর ছাড়াই অনেক জটিল হিসেব নিমিষেই সম্পন্ন করে ফেলা সম্ভব। বিভিন্ন ব্যাংকিং ব্যবস্থাপনাসহ, যাবতীয় অর্থনৈতিক হিসাব নিকাশ- এক কথায় হিসাব সংক্রান্ত প্রায় সমস্ত কাজ এক্সেলের স্প্রেডশীটে করা যায়।

মাইক্রোসফট এক্সেল কেন শিখবেন?

আমরা কম্পিউটারে যে অপারেটিং সিস্টেম Windows ব্যবহার করি, সেটি মাইক্রোসফট কোম্পানির তৈরি। মাইক্রোসফট কোম্পানি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে অবস্থিত। মাইক্রোসফট কোম্পানির তৈরি অনেক অফিস এপ্লিকেশন রয়েছে যেগুলো দিয়ে বিভিন্ন অফিসিয়াল কাজ করা হয়ে থেকে। এগুলো হচ্ছে – মাইক্রোসফট ওয়ার্ড, মাইক্রোসফট এক্সেল, পাওয়ারপয়েন্ট, মাইক্রোসফট অফিস, আউটলুক এবং ওয়ান ড্রাইভ ইত্যাদি।

মাইক্রোসফট এক্সেল দিয়ে কম্পিউটারে লিমিট ছাড়া দীর্ঘ স্প্রেডশীট নিয়ে কাজ করা যায়। যেখানে সব ধরনের হিসেব নিকেশ অনেক দ্রুত এবং সাজানো – গোছানো ভাবে করা যায়। এখানে বেসিক গাণিতিক ফাংশন থেকে শুরু করে জটিল পরিসংখ্যান বিশ্লেষণ পর্যন্ত ডেটা বাছাই এবং বিশ্লেষণ করার জন্য অসংখ্য ফিচার রয়েছে।

এক্সেল শেখা অনেক গুরুত্বপূর্ণ, কারণ, চাকরি পাওয়ার ক্ষেত্রে সবথেকে গুরুত্বপূর্ণ স্কিল হচ্ছে স্প্রেডশীট শেখা এবং ওয়ার্ড প্রসেসিং এপ্লিকেশন শেখা। তাহলে বুঝতেই পারছেন এক্সেল চাকুরী পাওয়ার জন্য কত বড় ভূমিকা রাখতে পারে। এক্সেলের ফিচার এত বেশি আছে যে, অনেকেই ঘাবড়ে গিয়ে এক্সেল শেখা ছেড়ে দেন। কিন্তু, এক্সেল একবার আয়ত্ত করতে পারলে এটি আপনার চাকরিজীবনে অনেক ভ্যালু সৃষ্টি করবে।

অফিসে পদোন্নতি সহ বিশেষ সুবিধা

আপনি যদি মাইক্রোসফট এক্সেল দিয়ে সব ধরণের ডাটা বা হিসেব সংরক্ষণ এবং সেগুলো এনালাইসিস করতে পারেন, তবে অফিসের প্রায় সকল কাজ আপনাকেই করতে হবে। আপনার হয়তো মনে হতে পারে, এতে করে আপনার কাজের চাপ বেড়ে যাবে। শুধু কাজের চাপ বাড়বে না, সঙ্গে অফিসে আপনার র‍্যাঙ্ক ও বাড়বে। ফলে, সহজেই পদোন্নতি, বেতন বৃদ্ধি সহ বিশেষ সুবিধা পাওয়ার সুবর্ণ সুযোগ পেয়ে যাবেন।

অফিসের বস আপনার কাজে খুশি হলে পরবর্তীতে আপনাকে যেকোনো কাজে এগিয়ে রাখবে। এতে করে আপনার ই পারিপার্শ্বিক লাভ।

দ্রুততার সাথে কাজের উপায়

একটি প্রতিষ্ঠান বা ব্যবসায়ের হিসাব রক্ষণ এর কাজে আপনাকে অনেক হিসেব নিকেশ করতে হবে। এজন্য ক্যালকুলেটর ব্যবহার করেও অনেক সময় হিসেব ভুল হয়ে থাকে। এছাড়াও, এটি অনেক সময়সাপেক্ষ একটি ব্যাপার। কিন্তু, আপনি চাইলে MS EXCEL দিয়ে অনেক সহজেই ডাটা সংরক্ষণ, হিসেব করা, ডাটা এনালাইসিস করা সহ সব ধরণের কাজ অনেক দ্রুত করতে পারবেন।

আর আপনি যদি একবার এর সমস্ত ব্যবহার শিখে নিতে পারেন, তাহলে যেকোনো জটিল স্ট্যাটিসটিক্যাল অ্যানালাইসিস ভালোমতো করতে পারবেন৷ আর কিবোর্ড শর্টকাট শিখে ফেললে প্রোডাক্টিভিটি ঠেকায় কে? এইজন্যই নিয়োগকর্তারা কর্মীদের এই স্প্রেডশিট সফটওয়্যারটির স্কিলের উপর বেশি জোর দেন।

তথ্যের সঠিক ব্যবহার

অফিস এপ্লিকেশনগুলো ব্যবহার করার সময় আপনি অনেক সহজেই এক এপ্লিকেশন এর তথ্য অন্য এপ্লিকেশনে ট্রান্সফার করে নিতে পারবেন। এক্সেল দিয়ে শুধু তথ্য সংরক্ষণ বা হিসেব করা নয়, এই এপ্লিকেশন দিয়ে যেকোনো ধরণের তথ্য এনালাইসিস করতে পারবেন এবং এগুলো যে কারও সাথে শেয়ার করতে পারবেন। আপনার তৈরি স্প্রেডশিট এর ডাটা অনেক সহজেই যে কেউ পড়তে, বুঝতে এবং চাইলে প্রিন্ট করে নিতে পারবে।

এক্সেলের কাজ কি তা নিশ্চয়ই এতক্ষণে পরিষ্কার ভাবে বুঝে গেছেন। এটি শিখে ফেলতে পারলে আপনাকে আর ঠেকায় কে? যেকোনো ধরণের চাকুরির ক্ষেত্রে কয়েক ধাপ এগিয়ে থাকতে পারবেন। অফিসের সব তথ্য দ্রুত এবং স্মার্ট উপায়ে সংরক্ষণ করতে পারবেন।

MS EXCEL কি – FAQ

Ms excel এর সুবিধা কি?

MS EXCEL এর বিভিন্ন সুবিধা রয়েছে। এগুলো মাঝে, স্প্রেডশিটে বিভিন্ন তথ্য সংরক্ষণ করা, ডাটা এনালাইসিস করা, দ্রুত সময়ে হিসেব করা, রিপোর্ট তৈরি করা সহ বিভিন্ন অফিসিয়াল কাজ রয়েছে। এমএস এক্সেল জানলে অনেক সহজেই উপরোক্ত কাজগুলো করতে পারবেন।

এক্সেল এর কাজ কি?

মাইক্রোসফট এক্সেল দিয়ে আপনি সব ধরণের ডাটা সংরক্ষণ, সেগুলো এনালাইসিস করতে পারবেন। এক্সেল দিয়ে বিভিন্ন অফিসিয়াল হিসেব, তথ্য, লেনদেন এর তথ্য সংরক্ষণ করা হয়ে থাকে। এটি অফিস এপ্লিকেশনগুলোর মাঝে অনেক গুরুত্বপূর্ণ একটি সফটওয়্যার।

আমাদের শেষ কথা

আমাদের আজকের এই পোস্টে আপনাদের সাথে MS EXCEL কি এবং এক্সেলের কাজ কি এ বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা করেছি। আশা করছি পোস্টটি সম্পূর্ণ পড়ে এই অব্দি এসেছেন। পোস্ট সম্পর্কে আপনার মতামত জানাতে ভুলবেন না। মাইক্রোসফট এক্সেল নিয়ে যেকোনো প্রশ্ন করতে পারেন কমেন্ট বক্সে। আজকের মতো এখানেই শেষ করছি। আল্লাহ্‌ হাফেয।

Leave a Comment