অনলাইনে ছবি বিক্রি করে আয় করুন । how to earn money by selling Photos $1000

কিভাবে ফটোগ্রাফি বিক্রি করে আয় হবে

মোবাইলে ছবি তুলে আয় করার জন্য অনেক Online Stock Images Website রয়েছে সেখানে আপনি ছবি গুলো আপলোড করে বিক্রির মাধ্যমে অনলাইনে ছবি বিক্রি করে আয় করতে পারেন। বর্তমানে অনেক ব্লগার, কনটেন্ট রাইটার এবং ডিজিটাল মার্কেটাররা তাদের বিভিন্ন প্রয়োজনে ইমেজ ক্রয় করার জন্য online Stock image website ব্যবহার করে থাকেন। ফলে আপনি খুব সহজেই আপনার তোলা ছবি গুলো সেখানে বিক্রয় করতে পারেন। (how to earn money by selling Photos)।

কারা স্টক ফটোগুলি ক্রয় করে এবং কোন ফটোগুলি বেশি বিক্রি হয়

বর্তমানে ইমেজ বা স্টক ফটোর চাহিদা অনেক বেশি, যা দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। অনেক বড় বড় ডিজিটাল মার্কেটার, কন্টেন্ট রাইটার, ব্লগার, ছোট-বড় এ্যাড কোম্পানী তাদের কাজের জন্য বিভিন্ন প্রকার স্টক ইমেজ এর প্রয়োজন হয়। তাদের প্রয়োজন মেটানোর জন্য তারা  online Stock image website থেকে স্টক ফটোগুলি ক্রয় করে। প্রাকৃতিক সৌন্দর্য, মানুষের ছবি, বিভিন্ন খাদ্যের ছবি, ভ্রমণ, বড় বড় শহরের ছবি, বিভিন্ন জাতি গোষ্ঠীর আচার অনুষ্ঠান ইত্যাদি ক্যাটাগরির ইমেজগুলি সাধারণত বেশি বিক্রয় হয়। 

ছবি বিক্রি করে কত টাকা আয় করা যায়

সাধারণত ছবি বিক্রি করে কত টাকা আয় করা যায় তা নিভর করে আপনি কতদিন ধরে ছবি আপলোড দিচ্ছেন, কত সংখ্যক ছবি আপলোড দিছেন বা কতগুলো ছবি বিক্রি হয়েছে ইত্যাদির উপর। সাধারণত ছবি প্রতি ০.২৫ ডলার থেকে ০.৩৫ ডলার এর মতো দিয়ে থাকে।  যদি আপনার বিভিন্ন ওয়েবসাইট এর মাধ্যমে ১০০ ছবি বিক্রি হয় তাহলে হিসাব করে দেখুন।

একটা ভালো এমাউন্ট টাকা আয় হবে। এখানে সুবিধা হলো একই ছবি বারে বারে বিক্রি হয়। এমনকি একই ছবি একাধিক ওয়েব সাইট এ আপলোড করা যায়। (ছবি বিক্রি করে কত টাকা আয় করা যায়)।

ছবি বিক্রির ওয়েবসাইট এ কিভাবে ছবি দিতে হয় 

ছবি বিক্রি করার জন্য Online Stock Image Websites ছবি আপলোড করার জন্য প্রথমে সাইন আপ করে নিতে হবে।  প্রাথমিক অবস্থায় প্রায় সব ওয়েবসাইট গুলোতে ফ্রিতে ছবি আপলোড করা যায়। তাই রেজিষ্ট্রেশন সম্পন্ন করার মাধ্যমে ছবি আপলোড দেয়া যাবে।  বেশি বেশি করে ছবি আপলোড দিতে হবে। 

ওয়েব সাইট কর্তৃপক্ষ ছবিগুলো রিভিউ করে উপযুক্ত মনে করলে তখন ছবিগুলো বিক্রির জন্য উপযুক্ত হবে বিবেচিত হবে এবং বিক্রি শুরু হবে।

অনলাইনে ছবি বিক্রি করে আয় করতে কি কি প্রয়োজন

অনলাইনে ছবি বিক্রি করে আয় করার জন্য কিছু কিছু জিনিস এর প্রয়োজনীয়তা অপরিসীম। নিচে সেগুলো নিয়ে আলোকপাত করা হলোঃ

>অবশ্যই একটি ভাল মানের ক্যামেরা থাকতে হবে (স্মার্ট ফোন হলেও চলবে)।

>ফটোগ্রফি নলেজ বা জ্ঞান ও অভিজ্ঞতা থাকতে হবে। এছাড়াও ভালো মানের ফটো এডিট করা জানতে হবে।

>বিভিন্ন স্টক ফটো বিক্রয় মার্কেট প্লেস সম্পর্কে ভালো ধারনা থাকতে হবে। যেমনঃ একাউন্ট তৈরি, ছবি আপলোড, ছবি বিক্রির কমিশন রেট, বেশি বেশি ছবি সেল করার উপায় ইত্যাদি বিষয়ে বিস্তারিত ধারনা থাকতে হবে। 

মোবাইল ফটোগ্রাফি করে আয় কি আয় করা যাবে?

অনলাইনে ছবি বিক্রি করে আয় করার জন্য প্রয়োজন একটি ক্যামেরা কিন্তু বর্তমান প্রেক্ষাপটে অনেকেরই ক্যামেরা নাই বা ক্যামেরা কিনে মোবাইল ফটোগ্রাফি করে আয় করা সম্ভব নয়। তাহলে উপায়? হ্যাঁ উপায় আছে বর্তমান পেক্ষাপটে আমাদের অনেকের কাছে সব সময় স্মার্ট ফোন থাকে। এর মধ্যে অনেকেরই আছে আবার ছবি তোলার আদম্য নেশা বা বাসনা।

ছবিও তোলে প্রচুর এবং সেই ছবি ফেসবুক পেজ এ পোস্ট দিয়ে লাইক, শেয়ার পেয়ে মজা নেন। কিন্তু আপনি কি জানেন আপনার মোবাইলে গ্যালারি  ভর্তি থাকা ছবি অনলাইনে বিক্রি করে আপনি মাসে হাজার হাজার টাকা আয় করতে পারেন। (মোবাইল ফটোগ্রাফি করে আয়)।

অনলাইনে আপনার ফটোগুলি বিক্রয়ের সেরা ১০টি ওয়েব সাইট

অনলাইনে আপনার ফটোগুলি বিক্রয়ের সেরা ১০টি ওয়েব সাইটের নাম নিচে দেওয়া হলো। এই ওয়েবসাইট গুলোতে রেজিষ্ট্রেশন করে আপনি ফটো আপলোড করতঃ অনলাইনে ছবি বিক্রি করে আয় করতে পারবেন। এই সকল ওয়েব সাইট গুলিতে সাইন আপ করা খুবই সহজ সাধারণত ই-মেইল খোলার মতোই। তাই ভয় না করে ওয়েব সাইটগুলিতে সাইন আপ করে অনলাইন ইনকাম শুরু করুন। 

১.  Adobe Stock (এ্যডোবি স্টক) থেকে আয়।

Adobe Stock স্টক ইমেজের জন্য একটি খুব জনপ্রিয় ওয়েবসাইট। মাত্র ৫ বছরে, সাইটটি ১৫০+ মিলিয়ন স্টক ফটো, ১৬ মিলিয়ন চিত্র, ৪৮+ মিলিয়ন ভেক্টর, ৩৬ মিলিয়ন অডিও এবং ১৬ মিলিয়ন ভিডিও সংগ্রহ করেছে। গ্রাহক বান্ধব পরিষেবা এবং কন্ট্রিবিউটরদের বিশেষ যত্নের জন্য; এই সাইটটি সবার কাছে গ্রহণযোগ্য।

এই সাইটটিতে প্রচুর ছবি ক্রয়ের গ্রাহক রয়েছে। ছবি প্রতি ৩৩% কমিশন দিয়ে থাকে। অনলাইনে ছবি বিক্রি করে আয় করার জন্য এই সাইটটি অত্যন্ত নির্ভরযোগ্য।

Adobe Stock এ সাইন আপ করার জন্য এখানে ক্লিক করুন

২. Shutterstock (শাটার স্টক) থেকে আয়।

Shutterstock বিশ্বব্যাপী উচ্চমানের ফটো এবং ভিডিও কেনা ও বেচার জন্য একটি দারুন মার্কেটপ্লেস। শাটারস্টক ২০০৩ সালে চালু হয় সুতরাং তারা বিশ্বব্যাপি প্রায় ১৮ বছর ধরে ব্যবসা করছে। বর্তমানে  তারা প্রায় দেড় শতাধিক দেশে সুনামের সহিত কাজ করছে। শাটারস্টক বিক্রয়ের উপর খুব ভাল পরিমান কমিশন প্রদান করে থাকে।

আপনি যদি মোবাইল ফটোগ্রাফি করে আয় করতে চান তাহলে Shutterstock হতে পারে আপনার আনলাইনে ছবি বিক্রি করে আয় করার জন্য উন্মুক্ত চারনভূমি।

 

Shutterstock থেকে আয় করার জন্য এখানে যান

৩. Alamy থেকে আয়। 

হাই কোয়ালিটি ফুটেজের জন্য অত্যন্ত জনপ্রিয় একটি ওয়েবসাইট হচ্ছে Alamy। এই ওয়েব সাইটি প্রায় ২০০ মিলিয়ন stock images, vectors, videos এবং 360-degree panoramic image এর একটি মহা সংগ্রহশালা। এই সাইটে ছবি আপলোড করে আয় এর জন্য প্রথমে সাইটটিতে সাইন আপ করতে হবে। 

এখানে ফ্রিতেই রেজিস্ট্রেশন করা যায়। এরপর ড্যাশবোর্ডে গিয়ে আপলোড অপশনে ক্লিক করে প্রথমে তিনটি ছবি আপলোড করতে হবে। তারপর সেগুলো রিভিউ এর জন্য তিন সপ্তাহ সময় নিবে। ছবিগুলো নির্বাচিত হলে সেগুলো বিক্রির জন্য সাইটটিতে দেখা যাবে।

এই সাইটে আপনি দুই ভাবে ছবি বিক্রি করতে পারবেন সেটা হলো Exclusive এবং Non-exclusive। প্রতিবার ছবি বিক্রিতে Exclusively ৫০% এবং Non-exclusively ৪০% কমিশন পাওয়া যায়। ৫০ ডলার একাউন্টে  জমা হলেই ক্যাশ আউট করা যায়।

Alamy এর মাধ্যমে অনলাইনে ছবি বিক্রি করে আয় করার জন্য সাইন আপ করুন alamy.com

৪. Etsy থেকে আয়।

অনলাইনে ছবি বিক্রি করে আয় করার জন্য অন্যতম মাধ্যম হলো Etsy. Etsy সাধারনত বিক্রয়কারীদের পণ্য তালিকাভুক্ত ও বিক্রয় করার সময় তার চার্জ করা থেকে ইনকাম করে থাকে। কোনও ছবির তালিকা দেওয়ার জন্য সাইটটি $ 0.20 চার্জ করে এবং তালিকাটি চার মাস ধরে সাইটটিতে সক্রিয় থাকে। যদি আপনার পণ্য বিক্রি হয়া তাহলে Etsy বিক্রয় কমিশনের হিসাবে 3.5% চার্জ করে। 

ছবি বিক্রি করে আয় করার জন্য Etsyতে সাইন আপ করুন।

৫. Deposit Photos থেকে আয়।

এই স্টক ইমেজ সাইটটিও ফটোগ্রাফারদের কাছে বেশ জনপ্রিয়তা লাভ করেছে। প্রায় ১০০ মিলিয়ন কনটেন্ট সমৃদ্ধ সাইটটি শুধু ছবি নয়  Illustrations, Vector Art, Backgrounds, Editorial, News image এবং HD videos ও বিক্রি করতে পারবেন আপনি এখানে। 

এই সাইটতিতে প্রতি কনটেন্ট বিক্রিতে কমিশন দেয় ৩৪%-৪২%। এই কমিশন‌ নির্ভর করবে  পজিশনের উপর আর এই পজিশন নির্ভর করবে  ছবিগুলো কতবার ডাউনলোড হচ্ছে তার উপর। 

Deposit Photos এ ছবি বিক্রি করে আয় করতে সাইন আপ করুন এখানে

৬. Istock থেকে আয়।

IStock একটি মাইক্রো স্টক এজেন্সি যেখানে ফ্রি রেজিস্ট্রেশ করা যায়। রেজিস্ট্রেশ করার পর সাইটটিতে প্রথমে ০৩টি ছবি রিভিউ করার জন্য সাবমিট করতে হয়। রিভিউ শেষান্তে ছবিগুলো সিলেক্ট হয়ে গেলে নিয়মিত ছবি আপলোডের সুযোগ পাওয়া যাবে। অন্যান্য স্টক ইমেজ সাইটের মতো এটি খুব বেশি প্রেমেন্ট করে না।

 ছবি প্রতি Non-exclusively বিক্রিতে ১৫% কমিশন পাওয়া যায় এবং Exclusively বিক্রিতে ছবি ডাউনলোডের উপর নির্ভর করে কিছুটা বেশি কমিশন দেয়।

Istock এর মাধ্যমে অনলাইনে ছবি বিক্রি করে আয় করার জন্য সাইন আপ করুন এখান থেকে

৭. 500px থেকে আয়।

ক্রিয়েটিভ কন্টেন্টের জন্য একটি অত্যন্ত জনপ্রিয় স্টক ইমেজ সাইট হচ্ছে 500px। এখানে আপনি একজন কন্ট্রিবিউটর হিসেবে  অন্যদের ফলো করতে পারবেন। ইচ্ছা করলে আপনিতাদের মার্কেটপ্লেসে নিজের ছবি লিস্টও করতে পারেন।

কন্ট্রিবিউটরদের জন্য 500px প্রতিনিয়ত প্রতিযোগিতার আয়োজন করে থাকে। এই ওয়েব সাইটের মাধ্যমে আপনি প্রতি ছবি non-exclusively বিক্রিতে ৩০%; এবং exclusively বিক্রিতে ৬০% পর্যন্ত ইনকাম করতে পারবেন।

 500px এর মাধ্যমে মোবাইল ফটোগ্রাফি করে আয়করার জন্যএখানে সাইন আপ করুন

৮।   Fotolia থেকে আয়।

অডোবি কোম্পানির একটি ফটোগ্রাফি সাইট হচ্ছে  ফটোলিয়া। ২০১৯ সালে এই ফটো মর্কেটপ্লেসটি যাত্রা শুরু করে। এই প্রতিষ্ঠানটি নামকরা এডোবি কোম্পানির হওয়ার কারনে খুব অল্প সময়ে সারা বিশ্বে ব্যাপক জনপ্রিয়তা অর্জন করেছে। এখানে সবচেয়ে সুবিধা হলো ফটোলিয়া নতুন হওয়ার কারনে এখানে খুব সহজেই ফটো আপলোড করার অনুমোদন প্রাপ্ত হয়।

এই ওয়েবসাইটিতে প্রায় ৪৫ মিলিয়ন মানুষ ভিজিট করে প্রতিমাসে। এই ওয়েবসাইটে আপলোডকৃত ফটোগুলো খুব ভালোমানের হয়ে থাকে এবং এখানে ফটো বিক্রি করতে পারলে খুব ভালো দাম পাওয়া যায়। সুতরাং আপনি চাইলে এখানে ফটো বিক্রি করে টাকা আয় করতে পারেন। 

Fotolia থেকে আয় করার জন্য এখানে ক্লিক করুন

৯।  GettyImages থেকে আয়।

গেটি ইমেইজ একটি অত্যন্ত জনপ্রিয় স্টক ইমেজ সাইট। এখানে ছবির দাম অনেক বেশি হয়ে থাকে। যদি আপনি এখানে আপনার প্রোফাইল অনুমোদন করে ছবি বিক্রি করতে পারেন তাহলে প্রচুর পরিমানে টাকা আয় করতে পারবেন। প্রতি মাসে তাদের প্রায় ৫০ মিলিয়ন এর বেশি ভিজিটর রয়েছে।

সাধারণত এই ওয়েবসাইটে প্রাকৃতিক দৃশ্য ও ইমোশন টাইপের ছবির বেশি চাহিদা। তারা ছবির মালিককে ছবি বিক্রির ২০% কমিশন প্রদান করে। 

GettyImages থেকে আয় করার জন্য সাইন আপ করুন।

১০।  iStockPhoto থেকে আয়।

আইস্টক ফটো হলো আরেকটি স্টক ফটো শেয়ারিং মার্কেটপ্লেস। ইহা মূলত গেটি ইমেজ এর একটি অংশ এবং তারা সরাসরি এটিকে পরিচালনা করে। তবে এই মার্কেটপ্লেসে গেজি ইমেজ এর চাইতে খুব সহজে প্রোফাইল অনুমোদন করা যায়। প্রাথমিক অবস্থায় তিনটি ইমেজ আপলোড করার অপশন দেয়।

পরবর্তী ছবির কোয়ালিটি ভালো হলে আনলিমিটেড ছবি আপলোড করে সেল করার সুযোগ পাওয়া যাবে। সাধারণ আইস্টক ফটো থেকে ছবি বিক্রি হলে ২০-৪৫% কমিশন পাওয়া যায়।

iStockPhoto থেকে আয় করার জন্য এখানে ক্লিক করে সাইন আপ করুন

অনলাইনে ছবি বিক্রি করে আয় করার জন্য যে বিষয়গুলি লক্ষ্য রাখা উচিত

মার্কেটপ্লেসে ছবি বিক্রি করে আয় করার জন্য কাজের শুরুতে নিচের বিষয়গুলো মাথায় রাখতে হবেঃ

১. রেজিষ্ট্রেশন করার পূর্বে মার্কেটপ্লেসের শর্তাবলি ভালোভাবে জেনে নিতে হবে।

২. বিভিন্ন মার্কেটপ্লেসে স্থান পাওয়া ছবিগুলো দেখে ছবির মান ও ধরন সম্পর্কে ভাল্ভাবে ধারণা নিতে হবে।

৩. ফটোর উচ্চতা-প্রস্থের অনুপাত এবং রেজু্যলেশন সম্পর্কে সচেতন থাকতে হবে।

৪. ফটোর আলোর পরিমাণ যথাযথ বজায় রাখা।

৫. ফটোটি  ক্রয়ের পর ক্রেতার যেন খুব বেশি এডিট করার প্রয়োজন না পড়ে, সেদিকে খেয়াল রাখা।

৬. বাংলাদেশ থেকে কিভাবে টাকা তোলা যাবে সেই বিষয়ে ভালোভাবে জানতে হবে।

৭. ছবি বিক্রি হলে কত শতাংশ কমিশন পাওয়া পাওয়া যাবে সেটা ভাল্ভাবে জেনে নেওয়া।

৮. কত দিন অন্তর টাকা তোলা যাবে সেই বিষয়ে জানা।

৯. সর্বনিম্ন কত টাকা তোলা যাবে সেই বিষয়ে জানা। 

 মোবাইল ফটোগ্রাফি করে আয় করার জন্য আরও পডুন  shutterstock থেকে আয়

অনলাইনে ছবি বিক্রি করে আয়কৃত টাকা কিভাবে হাতে পাব?

অনলাইনে স্টক ফটো বিক্রয় ওয়েবসাইটের মাধ্যমে আয়কৃত টাকা হাতে পাওয়ার জন্য চিন্তার কিছু নেই। যে ওয়েবসাইটের মাধ্যমে আপনার ফটোগুলি বিক্রয় হবে প্রথমে সেই ওয়েব সাইটের একাউন্টে আগে টাকা জমা হবে। পরবর্তীতে সেই টাকা হাতে পেতে হলে বর্তমানে আমাদের দেশের জন্য নিচের পদ্ধতি সমূহ চালু রয়েছে সেগুলো হলোঃ

Wire Transfer বা লোকাল ব্যাংকের মাধ্যমে। 

আমাদের প্রায় সকলেরই লোকাল ব্যাংকে একাউন্ট আছে। যাদের মাধ্যমে আমরা ফ্রিল্যান্সিং করে আয়কৃত টাকা  দেশের বাইরে থেকে আমাদের দেশের লোকাল ব্যাংকের নিজস্ব একাউন্টে নিয়ে আসতে পারি। যেমনঃ ইসলামি ব্যাংক, ডাচ-বাংলা ব্যাংক, ইবিএল, সোনালী ব্যাংক ইত্যাদি। এ সকল ব্যাংকের মাধ্যমে টাকা আনতে সাধারনত ১ হতে ৬ দিন সময় লাগতে পারে।

Payoneer MasterCard এর মাধ্যমে  

যে সকল স্টক ফটো বিক্রয় ওয়েব সাইটগুলিতে লোকাল ব্যাংকের মাধ্যমে টাকা আনার সুবিধা নেই সেখান থেকে Payoneer Master Card এর মাধ্যমে প্রেমেন্ট পেতে পারেন। আর payoneer Master Card থাকলে আপনি যেখান থেকে খুশি সেখান থেকে টাকা তুলে নিতে পারবেন। Payoneer Master Card করতে প্রথমে কোন টাকা লাগে না।

তবে প্রথম প্রেমেন্ট এর সময় ২৯ ডলার কেটে নিবে তবে একাউন্ট করার সময় আপনাকে ২৫ ডলার বোনাস দেয়। ফলে খরচ প্রকৃত খরচ হয় মাত্র ৪ ডলার। 

তবে Payoneer Master Card এর রেজিষ্ট্রেশন করার সময় অবশ্যই সব ইনফরমেশন সঠিক দিতে হবে । কার্ড এর জন্য এপ্লাই করার সময় অনেকক্ষেত্রে কার্ড এর কি প্রয়োজন তার উপযুক্ত প্রমান চাইতে পারে তখন আপনার স্টক ইমেজ ওয়েবসাইটের প্রোফাইল লিংক দিতে হবে।

Skrill এর মাধ্যমে অনলাইনে ছবি বিক্রি করে আয়

পেপাল ফ্রিল্যান্সারদের জন্য সবচেয়ে সুবিধাজনক প্রেমেন্ট গেটওয়ে। কিন্তু বর্তমানে বাংলাদেশে পেপাল না থাকায় Skrill এর মাধ্যমে আপনার প্রেমেন্ট হাতে পেতে পারেন। Skrill এর মাধ্যমে আপনার বিভিন্ন অনলাইন কেনাকাটা যেমনঃ Domain, Hosting ইত্যাদি।

skrill এ একাউন্ট তৈরি করার সময় অবশ্যই সঠিক ইনফরমেশন দিতে হবে। Skrill হতে লোকাল ব্যাংকে টাকা আনতে ৩ থেকে ৭ দিন সময় লাগতে পারে। 

উপসংহার

আমি আশা করি এই গাইডলাইন আপনাকে অনলাইনে ছবি বিক্রি করে আয় করার জন্য সেরা ওয়েবসাইটগুলি খুঁজতে সহায়তা করেছে। অনলাইনে ছবি বিক্রি করে আয় করা খুব সহজ না হলেও খুব কঠিন কিছু না। তাই চেষ্টা করতে পারেন স্টক ফটো বিক্রয় করে অনলাইন ইনকাম শুরু করার জন্য। তার জন্য দরকার প্রচন্ড ইচ্ছাশক্তি ও পরিশ্রম করার মানুষিকতা। 

Leave a Comment