ইউটিউব থেকে কিভাবে টাকা আয় করা যায়। How can earn money from youtube

ইউটিউব থেকে কিভাবে টাকা আয় করা যায়
ইউটিউব থেকে কিভাবে টাকা আয় করা যায়

ইউটিউব কি? 

ইউটিউব হলো ভিডিও শিয়ারিং যোগাযোগ মাধ্যম। যার যাত্রা শুরু হয় ২০০৫ সালে। বর্তমানে ইউটিউব শুধু ভিডিও শেয়ারই করে না তার সাথে ভিডিও ক্লিপ, সিনেমা, গান, ডকুমেন্টরি এবং নানা ধরনের ভিডিওর বিশাল আর্কাইভ এ পরিনত হয়েছে। 

ইউটিউব থেকে কিভাবে টাকা আয় করা যায়  

ইউটিউবের আয় হলো পরোক্ষ আয় বা প্যাসিভ ইনকাম। মূলতঃ ইউটিউবের ভিডিওতে বিজ্ঞাপন দেখিয়ে যে আয় হয় তার একটি অংশ ভিডিও নির্মাতা বা ক্রিয়েটরকে দেওয়া হয়। ইউটিউবে চ্যানেল খুলে মনিটাইজেশন এর পাওয়ার মাধ্যমে  ইউটিউব থেকে টাকা আয় করা যায়।  তবে ইউটিউবে চ্যানেল খোলার সঙ্গে সঙ্গেই মনিটাইজেশন পাবেন না।

তার জন্য প্রয়োজন ১০০০ সাবস্ক্রাইব এবং ৪ হাজার ঘন্টা ওয়াচ টাইম। এছাড়া ইউটিউবে এমন কোনো ধরা বাধা নিয়ম নেই যে এক হাজার ভিউ হলে এত ডলার আয় হবে।

বাংলাদেশের অনেক বড় বড় ইউটিউবার আছে যাদের কারো কারো মাসিক আয় ৪০ থেকে ৫০ লক্ষ টাকা পর্যন্ত। আপনিও চাইলে ইউটিউব ভিডিও বানিয়ে ইনকাম শুরু করতে পারেন।

প্রাথমিক অবস্থায় ভিডিও বানাতে আপনার ক্যামেরা না থাকলেও চলবে। অনেক বড় বড় ইউটিউবার প্রথমে মোবাইল দিয়ে ভিডিও বানিয়ে তাদের ইউটিউব যাত্রা শুরু করে। তারপর সফল হওয়ার পরে দামি দামি গেজেট ব্যবহার করে। ইউটিউব থেকে কিভাবে টাকা আয় করা যায়

যদি আপনার কন্টেন্ট ভালো হয় এবং প্রয়োজনীয় বিষয় নিয়ে যদি আপনি ভিডিও বানাতে পারেন, তাহলে খুব তাড়াতাড়িই আপনি ভিউয়ার পেয়ে যাবেন। তবে একটা কথা মনে রাখতে হবে আপনি যদি সত্যিই প্রফেশনালভাবে ইউটিউবে কাজ করতে চান তাহলে ভিডিওর অডিও, এডিটিং, থাম্বনেইল এবং এসইও খুবই ভালো ভাবে করতে হবে। ইউটিউব থেকে কিভাবে টাকা আয় করা যায়

বর্তমানে ইউটিউবে মনিটাইজেশন ছাড়াও বিভিন্ন কোম্পানীর পণ্য স্পন্সারের মাধ্যমেও ইনকাম করতে পারেন। দেখা গেলো কোনো একটা কোম্পানি তাদের একটা পন্যের মার্কেটিং এর জন্য আপনার ভিডিওতে তদের ওই পন্য বিজ্ঞাপন দেয়ার জন্য বললো। আপনি এক্ষেত্রে বিজ্ঞাপন দিতে সম্মতি দিলে তারা আপনাকে আপনার চাহিদা অনুযায়ী  পেমেন্ট করবে।

গুগল ম্যাপ কিভাবে ব্যবহার করতে হয়

সাধারণত ইউটিউবাররা বিভিন্ন উপায়ে তাদের চ্যানেল থেকে ইনকাম করে থাকেন। তার মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলো বিজ্ঞাপন, অ্যাফিলিয়েট লিংক, ডোনেশন, পণ্য বিক্রয় এবং স্পন্সর ভিডিও ইত্যাদি। 

সুতরাং ইউটিউবে ইনকাম করার অনেক পথ রয়েছে। যদি মেধা, পরিশ্রম ও দক্ষতা দিয়ে একটি পপুলার ইউটিউব চ্যানেল তৈরী করতে পারেন তাহলে এখান থেকে ভালো পরিমান টাকা ইনকাম করতে পারবেন বলে আশা করা যায়।

Leave a Comment