খুব সহজেই ডিলিট হওয়া ফাইল ফিরে পাওয়ার উপায় জেনে নিন

আপনি কি জানতে চান ডিলিট হওয়া ফাইল ফিরে পাওয়ার উপায় সম্পর্কে? তাহলে ঠিক জায়গায় এসেছেন। কেননা আজকের এই পোষ্টের মাধ্যমে আমরা জানব কিভাবে কম্পিউটারে বা স্মার্ট ফোনে ডিলিট হওয়া ফাইল খুব সহজেই ফিরে পাওয়ার উপায় নিয়ে। আশাকরি বিষয়টি নিয়ে ভালোভাবে জানতে পারবেন।

ডিলিট হওয়া ফাইল ফিরে পাওয়ার উপায়
ডিলিট হওয়া ফাইল ফিরে পাওয়ার উপায়

কম্পিউটারে ডিলিট হওয়া ফাইল ফিরে পাওয়ার উপায়

আমাদের অনেকেরই কম্পিউটার বা ল্যাপটপে কাজ করার সময় ভুলবশত জরুরি ফাইল ডিলিট হয়ে যায়। ফলে সময় নষ্টের পাশাপাশি নানাবিধ সমস্যায় পড়তে হয়। যদি আপনি এই ধরনের সমস্যায় পড়েন এবং আপনার কম্পিউটার বা ল্যাপটপ যদি উইন্ডোজ ১১ অপারেটিং সিস্টেম দ্বারা পরিচালিত হয় তাহলে খুব সহজেই কম্পিউটার এবং ল্যাপটপে মুছে ফেলা ফাইলগুলি পুনরুদ্ধার করতে পারবেন।

কম্পিউটার বা ল্যাপটপ এর ডিলিট হয়ে যাওয়া ফাইলগুলি ফিরে পাওয়ার সবচেয়ে সহজ এবং সাধারণ উপায় হল রিসাইকেল বিন ফোল্ডার থেকে ফাইলগুলি রিস্টোর করা। কিন্তু অনেকেই নিয়মিত রিসাইকেল বিনের ডেটা মুছে ফেলেন। ফলস্বরূপ, মুছে ফেলা ফাইলগুলি রিসাইকেল বিনেও পাওয়া যাবে না। তবে চাইলেই, ফাইল রিকভারি সফটওয়্যার ব্যবহার করে মুছে ফেলা ফাইল পুনরুদ্ধার করা সম্ভব। তবে এর জন্য সফটওয়্যারটি আগে থেকেই কম্পিউটারে ইন্সটল করে রাখতে হবে।

আরো পড়ুনঃ যে উপায়ে ফাইল জীপ এবং আনজিপ করবেন

কম্পিউটার বা ল্যাপটপ এর ডিলিট হয়ে যাওয়া ফাইলগুলি পুনরুদ্ধার করতে, প্রথমে ফাইল রিকভারি সফটওয়্যার দিয়ে হার্ড ডিস্ক স্ক্যান করুন। যদি খুঁজে না পাওয়া যায়, তাহলে ফাইলটি যে ড্রাইভে ছিল সেই ড্রাইভটি নির্বাচন করুন। স্ক্যান শেষে রিকভারি সফটওয়্যারটি ড্রাইভটি থেকে মুছে যাওয়া সকল ফাইলের একটি তালিকা দেখাবে। সেখান থেকে কাঙ্ক্ষিত ফাইলটি নির্বাচন করতঃ রিকভার বাটনে ক্লিক করুন। এখন যে ড্রাইভে ফাইলটি সেভ করতে চান সেই ড্রাইভটি নির্বাচন করে দিলেই মুছে যাওয়া ফাইলটি পুনরায় ব্যবহার করতে পারবেন।

ডিলিট হওয়া ফাইল ফিরিয়ে আনার আগে সেই ফাইলের নামে নতুন কোনো ফাইল খুলা যাবে না। কারণ, একই নামে একাধিক ফাইল থাকলে ডিলিট হওয়া ফাইল ফিরিয়ে আনতে পারে না ফাইল রিকভারি সফটওয়্যারটি।

ডিলিট হওয়া ফাইল ফিরে পাওয়ার উপায় সম্পর্কে শেষকথা

প্রিয় পাঠক, উপরের আলোচনা থেকে আমরা জানতে পারলাম, খুব সহজেই ডিলিট হওয়া ফাইল ফিরে পাওয়ার উপায় সম্পর্কে। আশা করছি সম্পূর্ণ ব্লগটি মনোযোগ সহকারে পড়েছেন। আর এই বিষয়ে আরও কিছু জানতে চাইলে কমেন্ট করুন। নিয়মিত আমাদের ব্লগ পড়তে চাইলে ওয়েবসাইট ভিজিট করুন। চোখ রাখুন অফিসিয়াল ব্লগের ফেসবুক পেজে।

Leave a Comment