৭ দিনে ব্রণ দূর করার উপায়

৭ দিনে ব্রণ দূর করার উপায়– সুন্দর চেহারা কে না চায়? সবাই চাই সুন্দর হতে। কিন্তু সুন্দর চেহারার জন্য প্রয়োজন মুখের ত্বক সুন্দর হওয়া। মুখে যদি কালো দাগ বা ব্রণ থাকে তাহলে কারোরই সেটা ভালো লাগে না। মুখে ব্রণ হওয়া একটি কমন সমস্যা। এই সমস্য ছেলে মেয়ে উভয়ের হয়ে থাকে। তাই মুখে ব্রণ হলে বিচলিত না হয়ে কিভাবে ব্রণ থেকে মুক্তি পাওয়া যায় সেই বিষয়টি জেনে নেওয়া হবে বুদ্ধিমানের কাজ।

তাই আজকের পোষ্টে আমরা জানব কিভাবে দ্রুত ব্রণ দূর করা যায় সেই সম্পর্কে। মাত্র ৭ দিনে ব্রণ দূর করার উপায় জানতে আজকের পোষ্টটি শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত পডুন। আশা করি ৭ দিনের মধ্যেই আপনার মুখের ব্রণ দূর হয়ে যাবে।

দিনে ব্রণ দূর করার উপায়
৭ দিনে ব্রণ দূর করার উপায়

৭ দিনে ব্রণ দূর করার উপায়

সাধারণত ব্রণ বা ফুসকুড়ি ভালো হয়ে যাওয়ার পর মুখের ত্বকে এক ধরনের কালো দাগ দেখা দেয়। চিকিৎসা ব্রণ ও দাগ থেকে মুক্তি দিলেও ওষুধ ও ক্রিমের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ার ভয় থেকে যায়। তদুপরি, এই জাতীয় জিনিসগুলি ব্যয়বহুল। কিন্তু এমন কালো দাগ যদি প্রাকৃতিকভাবে দূর করা যায়, তাহলে সবচেয়ে ভালো।

আয়ুর্বেদিক জার্নাল ফর মেডিকেল সায়েন্সে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদনে এমনই একটি ঘরোয়া ও নির্ভরযোগ্য প্রতিকারের কথা বলা হয়েছে। যার সাহায্যে মাত্র সাত দিনে মুখের ত্বককে দাগমুক্ত করা যায়।

চলুন জেনে নেওয়া যাক সহজ উপায়গুলোঃ

১। মুখের আক্রান্ত স্থানে সরাসরি লেবুর রস লাগান। ১৫-২০ মিনিট পর পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন। এটি দিনে দুবার করুন। আপনি আগামী ৫-৭ দিনের মধ্যে পার্থক্য দেখতে পাবেন।

২। এক চা চামচ মধুর সাথে এক চা চামচ লেবুর রস মেশান। মুখের কালো দাগের উপর এই মিশ্রণটি লাগান। ১৫-২০ মিনিট পর মুখ ধুয়ে ফেলুন। এর পর কিছু দেবেন না।

৩। এক চা চামচ লেবুর রসের সাথে এক চা চামচ টমেটোর রস মিশিয়ে নিন। ওই মিশ্রণে এক চা চামচ ওটমিল মিশিয়ে নিতে পারলে ভালো ফল পাবেন। এই মিশ্রণটি আক্রান্ত স্থানে লাগান এবং ১৫ মিনিট পর পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন। এটি দিনে দুবার করলে দ্রুত ফল পাওয়া যাবে। দেখবেন কত দ্রুত কালো দাগ দূর হয়ে যাবে।

আসলে লেবুতে থাকা সাইট্রিক অ্যাসিড ত্বকের জন্য খুবই উপকারী। এটি ত্বকে একটি অদৃশ্য প্রতিরক্ষামূলক ঢাল তৈরি করে। এটি ব্রণ সৃষ্টিকারী ব্যাকটেরিয়াকেও মেরে ফেলে এবং ত্বক থেকে তৈলাক্ততা দূর করে। তাহলে আর দেরি নেই। আজ এই পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া বিনামূল্যে ঘরোয়া প্রতিকার সঙ্গে শুরু করুন. আর এক সপ্তাহের মধ্যে পান দাগমুক্ত মুখ। সেই সঙ্গে উজ্জ্বল ত্বক।

আরও পড়ুনঃ ছেলেদের মুখে ব্রণ দূর করার উপায়

৭ দিনে ব্রণ দূর করার উপায় সম্পর্কে প্রায়শই জিজ্ঞাসিত প্রশ্নাবলী

প্র: পিম্পল ফোটানো কি ঠিক?
উ: না, না, এটা একদমই ঠিক না। পপিং পিম্পল আপনাকে সাময়িক স্বস্তি দিতে পারে, তবে এটি একটি দাগ রেখে যাবে যা ম্লান হতে আরও বেশি সময় লাগবে, এমনকি প্রতিকার পাওয়া গেলেও। তাছাড়া, ব্রণ-প্রবণ ত্বকের ব্যক্তিদেরর চিকিত্সকরা যে সবচেয়ে প্রাথমিক জিনিসগুলি বলে থাকেন তা হল তাদের হাত মুখ থেকে দূরে রাখা। পপিং ব্রণ ব্যাকটেরিয়া ছড়িয়ে দেবে এবং আরও ব্রণ তৈরি করবে। সুতরাং, যতই লোভনীয় হোক না কেন, আপনার পিম্পলগুলি পপ করবেন না।

প্র. ব্রণ প্রতিরোধের কিছু টিপস এবং কৌশল কি?
উ: যদিও এগুলি জরুরী সমাধান, সেখানে আরও নিয়মিত টিপস এবং কৌশল রয়েছে যা প্রথমে ব্রণ হওয়া থেকে রক্ষা করতে পারে৷ এখানে কিছু প্রাকৃতিক ঘরোয়া প্রতিকার এবং এখানে কিছু বিশেষজ্ঞ টিপস রয়েছে।

প্র: ব্রণের দাগ সম্পর্কে আমার কী করা উচিত?
উ: ব্রণের দাগ সত্যিই কষ্টকর এবং ব্রণের চেয়ে চিকিত্সা করা আরও কঠিন। তবে, আমাদের কাছে এটি সহ সবকিছুর সমাধান রয়েছে। আপনার চেষ্টা করার জন্য এখানে কিছু অত্যন্ত সহজ সমাধান রয়েছে। ভিটামিন ই তেলও একটি কার্যকর সমাধান।

৭ দিনে ব্রণ দূর করার উপায় সম্পর্কিত শেষ কথা

আজকে আমরা ৭ দিনে ব্রণ দূর করার উপায় সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করেছি। আশা করছি ভালো লেগেছে। আর্টিকেলটি ভালো লাগলে ফ্রেন্ডস এবং ফ্যামিলির সাথে শেয়ার করতে পারেন এবং আর্টিকেল সম্পর্কে কোন মন্তব্য মতামত অথবা পরামর্শ থাকলে আমাদের কমেন্ট বক্সে জানাতে পারেন।

আমরা অতি শীঘ্রই রিপ্লাই দেওয়ার চেষ্টা করব। প্রতিদিন নতুন নতুন সব আপডেট ইনফরমেশন পেতে আমাদের ওয়েবসাইট বুক মার্ক করে রাখতে পারেন।