সুনিয়া নামের অর্থ কি? সুনিয়া নামের ইসলামিক অর্থ জেনে নিন

সুনিয়া নামের অর্থ কি এবং সুনিয়া নামের ইসলামিক অর্থ কি এসব বিষয় নিয়ে আজকের এই পোস্টে আপনাদের সাথে বিস্তারিত আলোচনা করবো। মেয়ে সন্তানের জন্য সুনিয়া নাম রাখতে চাইলে এই পোস্ট থেকে সুনিয়া নামটির অর্থ কি তা জানতে পারবেন। এছাড়াও, আপনি যদি সুনিয়া নামের সাথে স অক্ষর দিয়ে আরও কোনো নাম যুক্ত করে নাম রাখতে চান, তবে সেগুলোও পেয়ে যাবেন এই পোস্টে।

সুনিয়া নামের সাথে স দিয়ে অনেক নাম তৈরি করা যায়। আপনি চাইলে সুনিয়া নামের সাথে অন্য নাম যুক্ত করে নাম রাখতে পারেন। এছাড়াও, আপনার নাম যদি সুনিয়া হয়ে থাকে, তবে আপনার নামের অর্থও জানতে পারবেন এই পোস্ট থেকে। তো চলুন, পোস্টের মূল বিষয়ে ফিরে আসা যাক।

সুনিয়া নামের অর্থ কি

সুনিয়া নামের অর্থ
সুনিয়া নামের অর্থ

সুনিয়া নামের অর্থ হচ্ছে মনোহর, সুবর্ণ, সোনালী। সুনিয়া মেয়েদের ইসলামিক নাম। এই নামটি শুধুমাত্র মেয়েদের ক্ষেত্রেই প্রযোজ্য। আপনার যদি মেয়ে সন্তান জন্ম নিয়ে থাকে, তবে অবশ্যই তার জন্য সুনিয়া নামটি বাছাই করতে পারেন। এই নামটির অনেক সুন্দর অর্থ রয়েছে। তাই, আপনার মেয়ে সন্তানের আকিকা করে সুনিয়া নামটি রাখতে পারেন। সুনিয়া নামটি আমাদের দেশে অনেক জনপ্রিয়। মুসলিম অনেকেই তার সন্তানের জন্য এই নামটি বাছাই করেছেন।

সুনিয়া নামের অর্থ কি তা নিশ্চয়ই এতক্ষণে জেনে গেছেন। আপনার নাম যদি সুনিয়া হয়ে থাকে, তবে এখন থেকে কেউ আপনার নামের অর্থ জানতে চাইলে মনোহর, সুবর্ণ, সোনালী বলবেন। আপনার যদি মেয়ে শিশু জন্ম নিয়ে থাকে, তবে তার নামকরণ করার জন্য এই নামটি বাচাই করতে পারেন।

সুনিয়া নামের ইসলামিক অর্থ কি

সুনিয়া একটি ইসলামিক নাম। এই ইসলামিক নামটির অর্থ হচ্ছে মনোহর, সুবর্ণ, সোনালী। আপনার মেয়ে শিশুর জন্য ইসলামিক নাম রাখতে চাইলে সুনিয়া নামটি বাছাই করতে পারেন। আমাদের দেশের এবং মুসলিম বিশ্বের অনেকেই তাদের মেয়ে সন্তানের জন্য সুনিয়া নাম রেখেছেন। সুনিয়া শব্দটি অনেক সুন্দর যা আপনার সন্তানের জন্য বাছাই করতে পারেন।

আরও পড়ুন – আরমিন নামের অর্থ কি? আরমিন নামের ইসলামিক অর্থ জেনে নিন

একটি শিশু জন্ম নিলে তার আকিকা করে নাম রাখতে হয়। আকিকা করার নিয়ম এর মাঝে সন্তানের নামকরণ করার কথা বলা হয়েছে। তাই, পিতা-মাতা হিসেবে সন্তানের নাম রাখতে হবে। এটি পিতা-মাতার একটি কর্তব্য। নাম রাখার সময় অবশ্যই সন্তানের জন্য একটি ইসলামিক নাম বাছাই করতে হবে যে নামের সুন্দর অর্থ রয়েছে।

অনেকেই তার সন্তানের নাম রাখার সময় কোন নামটি রাখবেন তা নিয়ে দ্বিধায় পড়ে যান। আপনি চাইলে আপনার মেয়ে সন্তানের জন্য সুনিয়া নাম রাখতে পারেন।সুনিয়া নামের অর্থ ইতোমধ্যে উল্লেখ করে দিয়েছি। আপনি চাইলে স দিয়ে মেয়েদের আরও কিছু ইসলামিক নাম যুক্ত করে একটি সুন্দর নাম আপনার সন্তানের জন্য বাছাই করতে পারেন। নিচে আপনার জন্য স দিয়ে মেয়ে শিশুর ইসলামিক নামের তালিকা উল্লেখ করে দিয়েছি।

স দিয়ে মেয়েদের ইসলামিক নাম অর্থসহ

স দিয়ে মেয়েদের ইসলামিক নামের অর্থসহ তালিকা নিচে পেয়ে যাবেন। এই তালিকায় আপনাদের জন্য স অক্ষর দিয়ে মেয়ে শিশুর যত ইসলামিক নাম আছে, সব নামের অর্থ পেয়ে যাবেন। তো চলুন, স অক্ষর দিয়ে মেয়েদের ইসলামিক নামগুলো দেখে নেয়া যাক।

1. সারাহ – নামটির অর্থ – অভিজাত বংশের নারী, রাজকুমারী।

2. সাবিহা – নামটির অর্থ – রূপসী নারী।

3. সাবিয়া – নামটির অর্থ – প্রকাশিত হয়েছে এমন এক গুন যা সবাই কে মুগদ্ধ করে।

4. সালামা – নামটির অর্থ – সুখ অথবা শান্তিকে বোঝানো হয়েছে এই নামের অর্থ দিয়ে।

5. সালিহা – নামটির অর্থ – এমন এক নারী যে আনন্দ প্রদান করতে সক্ষম।

6. সামা – নামটির অর্থ – গগন অর্থাৎ মহাকাশ বা আকাশের সৌন্দর্য।

7. সাবা – নামটির অর্থ – এই শব্দের অর্থ পূর্বের হাওয়া ।

8. সামীরা – নামটির অর্থ – এই নারী রাতের বেলায় কথোপকথন এ সহযোগী হয়।

9. সামিয়া – নামটির অর্থ – বিশিষ্ট  প্রদান করতে সক্ষম এমন একটি মহিলা।

10. সামীম – নামটির অর্থ – সত্য অর্থাৎ খাঁটি যে সততা এর সাথে জীবন যাপন করে এমন।

11. সাহীরা – নামটির অর্থ – একটি পর্বত যা  দন্ডায়মান রুপে রয়েছে।

12. সাবরিনা – নামটির অর্থ – রাজবংশী এবং রাজার মেয়ে অর্থাৎ রাজকুমারী।

13. সাবিকা – নামটির অর্থ – যে সর্বদা প্রথম স্থান অধিকার করে এমন এক নারী।

14. সাদিদা – নামটির অর্থ – সর্বদাই ঠিক কথা বলে থাকেন এমন এক জন নারী।

15. সাফা – নামটির অর্থ – একটি কাবা এর কাছে অবস্থিত একটি পাহাড়।

16. সাফিনা – নামটির অর্থ – এমন একটি ছোট নৌকো বোঝায় যেটি খুব সুন্দর দেখতে।

17. সাহিবা – নামটির অর্থ – এমন  এক জন নারী যে খুব মহান এবং মহীয়সী।

18. সাফিউন – নামটির অর্থ – এই শব্দের অর্থ হলো আসল বন্ধু অর্থাৎ সত্যিকারের বন্ধু।

19. সাফিয়া – নামটির অর্থ – এমন এক নারী যে ধর্মের প্রতি বিশ্বাস রাখে অর্থাৎ ধার্মিক।

20. সাফিরা – নামটির অর্থ – এমন একজন মহিলা যে  ভ্রমণ করতে পছন্দ করে।

21. সাজিলা – নামটির অর্থ – যে নারী একদিক কেন্দ্রিক হয়ে থাকে অর্থাৎ “নির্ধারিত”।

22. সাজিয়া – নামটির অর্থ – এমন একজন রমণী যে খুব আকর্ষণীয় ।

23. সাকিনা – নামটির অর্থ – খুবই শান্ত প্রকৃতির এমন এক জন নারী বা নিস্তব্ধতা বোঝানো হয়।

24. সাক্বিফাহ – নামটির অর্থ – সুন্দর আঙ্গিনা নির্দেশ করে।

25. সাফিরুন – নামটির অর্থ – এই শব্দটি পাখি কণ্ঠের ঐকতান বোঝায়।

26. সামরীন – নামটির অর্থ – যে  সর্বদা  সাহায্য করে এমন একজন নারী।

27. সামরিনা – নামটির অর্থ – এক চরিত্র এর নারী যে  ফুল এর সমতুল্য।

28. সারিফাহ – নামটির অর্থ – খেজুর গাছের শাখাকে নির্দেশ করে। খেজুর একটি জান্নাতি ফল হওয়ায় এই শব্দটি অনেক অর্থবহ।

29. সানা – নামটির অর্থ – এমন এক  জন মহিলা  যে প্রতিভা সম্পূর্ণ হয়।  

30. সানাদ – নামটির অর্থ – এমন এক জন নারী যে কেনো কিছু কে সর্মথন করে।

31. সানাম – নামটির অর্থ – এটি এমন একটি নাম যার অর্থ সৌন্দর্য বোঝায়।

32. সারা – নামটির অর্থ – এই নামের অর্থ শঙ্কু বহনকারী গাছকে বোঝায়।

33. সারাফ নাওয়ারঃ এই ো গানরত ফুল। অর্থাৎ ফুলের গান গাওয়া বোঝায়।

34. সারাফ আতিকা – নামটির অর্থ – এই নামের অর্থ দিয়ে গানরত সুন্দরী নারীকে বোঝানো হয়ে থাকে।

35. সানিনা – নামটির অর্থ – শিশু কালের বন্ধু কিংবা ভালো বন্ধু বোঝানো হয় এই নামের অর্থে।

36. সানজিদা – নামটির অর্থ – এক মহিলা দায়িত্ব বদ্ধ এমন  বোঝানো হয়ে থাকে।

37. সাবাহাত – নামটির অর্থ – এই শব্দের অর্থ সৌন্দর্য্য মন্ডিত হওয়া।

38. সাহানা – নামটির অর্থ – যে কোন বিষয়ে ধৈর্যশীল বা ধৈর্য ধরে রাখতে পারে এমন কেউ।  

39. সাকিবা – নামটির অর্থ – যে নারী সুক্ষ বুদ্ধির অধিকারী এমন একজন কে বোঝানো হয়ে থাকে।

40. সাবুরা – নামটির অর্থ – এই শব্দ দ্বারা ধৈর্য্যশীল নারীকে বোঝায়।  

আমাদের শেষ কথা

ফেরদাউস অ্যাকাডেমির আজকের এই পোস্টে আপনাদের সাথে সুনিয়া নামের অর্থ কি এবং সুনিয়া নামের ইসলামিক অর্থ কি এসব বিষয় নিয়ে আলোচনা করেছি। এছাড়াও, স দিয়ে মেয়েদের ইসলামিক নামের অর্থসহ তালিকা শেয়ার করেছি। আশা করছি, এই তালিকা থেকে যেকোনো একটি নাম আপনার মেয়ে সন্তানের জন্য পছন্দ করে ফেলেছেন। নামটি কমেন্ট করে জানাতে ভুলবেন না যেন। আজকের পোস্ট এখানেই শেষ করছি। আরও এমন ইসলামিক নামের অর্থ জানতে আমাদের ওয়েবসাইটের অন্যান্য পোস্টগুলো ভিজিট করতে পারেন। আল্লাহ্‌ হাফেয।

Leave a Comment