প্রতিদিন 100 টাকা ইনকাম করার সহজ উপায়

প্রতিদিন 100 টাকা ইনকাম করতে চান? কিন্তু কীভাবে প্রতিদিন ১০০ টাকা আয় করা যায় জানেন না? চিন্তার কোনো কারণ নেই। আজকের এই পোস্টে আপনাদের সাথে এমন কিছু উপায় শেয়ার করবো, যেগুলো অনুসরণ করে অনেক সহজেই আপনি প্রতিদিন ১০০ টাকার বেশি ইনকাম করতে পারবেন। তো চলুন শুরু করা যাক।

প্রতিদিন 100 টাকা ইনকাম করার উপায়

প্রতিদিন ১০০ টাকা আয়
প্রতিদিন ১০০ টাকা আয়

ঘরে বসে যদি টাকা কামানো যায়, তবে কত ভালোই না হবে, তাই না? আপনিও নিশ্চয়ই ঘরে বসে, শুয়ে না থেকে টাকা কামাতে চান। আপনার হাতে একটি মোবাইল ফোন কিংবা একটি কম্পিউটার থাকলে অনেক সহজেই অনলাইনের মাধ্যমে প্রতিদিন ১০০ টাকা থেকে শুরু করে ১ হাজার টাকার বেশি ইনকাম করতে পারবেন। নিচে কিছু উপায় উল্লেখ করে দিয়েছি, এগুলো থেকে আপনি প্রতিদিন ১০০ টাকা আয় করতে পারবেন।

প্রতিদিন 100 টাকা ইনকাম করার পদ্ধতি গুলো –

  • কন্টেন্ট রাইটিং করে টাকা আয়
  • ব্লগিং করে টাকা ইনকাম
  • গুগল অ্যাডসেন্স থেকে টাকা ইনকাম
  • ওয়েবসাইট বানিয়ে টাকা ইনকাম
  • ওয়েবসাইট বিক্রি করে টাকা ইনকাম
  • সিপিএ মার্কেটিং করে টাকা ইনকাম

উপরে যেসব পদ্ধতি উল্লেখ করে দিয়েছি, সেগুলো থেকে আপনি প্রতিদিন 100 টাকা ইনকাম করতে পারবেন। শুধু ১০০ টাকা নয়, বরং আপনি যদি এই কাজগুলো ঠিকভাবে করতে পারেন, তবে অল্প সময়ে অনেক বেশি টাকা ইনকাম করতে পারবেন। তো চলুন, এই বিষয়গুলো নিয়ে আরেকটু বিস্তারিত জেনে নেয়া যাক।

কন্টেন্ট রাইটিং করে টাকা আয়

কন্টেন্ট রাইটিং করে অনেকেই মাসে প্রচুর টাকা ইনকাম করছে। আপনি যদি ভালো মানের কন্টেন্ট লিখতে পারেন, তবে সেই কন্টেন্ট বিক্রি করে প্রতি মাসে অনেক ভালো পরিমাণে টাকা ইনকাম করতে পারবেন। এক্ষেত্রে, আপনি যদি এসইও কন্টেন্ট লিখতে পারেন, তবে এটির চাহিদা অনেক বেশি। একজন এসইও কন্টেন্ট রাইটার এর চাহিদা মার্কেটপ্লেস এ প্রচুর।

আরও পড়ুন – প্রতিদিন ২০০ টাকা ইনকাম করার উপায়

আপনি যদি বাংলা কন্টেন্ট লিখতে পারেন, তবে প্রতি হাজার শব্দের জন্য বাংলাদেশি টাকায় ২০০ টাকা থেকে শুরু করে ৫০০ টাকা অব্দি ইনকাম করতে পারবেন। আবার, অপরদিকে আপনি যদি ইংরেজি কন্টেন্ট লিখতে পারেন, তবে প্রতি ১ হাজার শব্দের জন্য ৫০০ থেকে শুরু করে ২০০০ টাকা বা তার বেশি নিতে পারেন। আপনি যদি বাইরের মার্কেটপ্লেস এ কাজ করেন, তবে এর থেকেও বেশি পরিমাণে ইনকাম করা সম্ভব। এটি শুধুমাত্র এসইও কন্টেন্ট রাইটিং এর ক্ষেত্রে।

ব্লগিং করে টাকা ইনকাম

একটি ওয়েবসাইট বানিয়ে সেখানে লেখালেখি করা, এসইও করা এবং ওয়েবসাইটে ভিজিটর নিয়ে আসা সহ সকল কাজ ই হচ্ছে ব্লগিং এর অন্তর্গত। ব্লগিং করে অনেকেই ঘুমিয়ে ঘুমিয়ে টাকা ইনকাম করে থাকে। কী বিশ্বাস হচ্ছে না তো? মনে করুন আপনি একটি ওয়েবসাইট তৈরি করলেন এবং সেখানে অনেক লেখা পাবলিশ করলেন। এরপর আপনার ওয়েবসাইট এসইও করলেন।

এতে করে কেউ যখন আপনার লেখার গুগলে সার্চ করে সামনে পেয়ে আপনার ওয়েবসাইটে ঢুকে পড়বে, এবং আপনি সেই ওয়েবসাইটে যদি বিভিন্ন প্লাটফর্ম এর অ্যাডস কিংবা অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং এর প্রডাক্ট প্রোমোশন করে থাকেন, তবে সেখানে থেকে ঘুমিয়ে ঘুমিয়েই টাকা ইনকাম করতে পারবেন। আপনাকে শুধু কন্টেন্ট পাবলিশ করতে হবে। প্রতিদিন 100 টাকা ইনকাম করতে পারবেন। অনেকেই ব্লগিং করে মাসে লক্ষ টাকা আয় করে থাকে।

গুগল অ্যাডসেন্স থেকে টাকা ইনকাম

গুগল অ্যাডসেন্স হচ্ছে একটি বিজ্ঞাপন দাতা প্রতিষ্ঠান। অর্থাৎ, আপনি চাইলে আপনার ওয়েবসাইট কিংবা ইউটিউব চ্যানেলে গুগলে অ্যাডসেন্স এর অ্যাডস লাগিয়ে টাকা ইনকাম করতে পারেন। আপনি যখন কোনো ওয়েবসাইট ভিজিট করেন কিংবা কোনো ইউটিউব চ্যানেল এর ভিডিও দেখেন, তখন হয়তো লক্ষ্য করেছেন, বিভিন্ন অ্যাডস শো করে। এই অ্যাডস গুলোর মাধ্যমে উক্ত ওয়েবসাইট কিংবা ইউটিউব চ্যানেল এর মালিক টাকা ইনকাম করে থাকে।

আপনারও যদি এমন ওয়েবসাইট কিংবা ইউটিউব চ্যানেল থাকে, না থাকলে তৈরি করার পর আপনিও গুগল অ্যাডসেন্স এর অ্যাডস লাগিয়ে টাকা ইনকাম করতে পারবেন। অনেকেই শুধু প্রতিদিন ১০০ টাকা আয় করতে চান। কিন্তু আপনি এই পদ্ধতিতে প্রতি মাসে কয়েক হাজার থেকে শুরু করে লক্ষাধিক টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

ওয়েবসাইট বানিয়ে টাকা ইনকাম

আমার এই লেখাটি এখন নিশ্চয়ই একটি ওয়েবসাইটে পড়ছেন। কারণ, এই লেখাটি একটি ওয়েবসাইটে পাবলিশ করা হয়েছে। আপনি যদি এমন ওয়েবসাইট তৈরি করতে পারেন, তবে অনেক টাকা উপার্জন করতে পারবেন। বিশ্বাস হচ্ছে না তো? ফাইভার, আপওয়ার্ক কিংবা ফ্রিল্যান্সার মার্কেটপ্লেসে গেলে দেখবেন, অনেকেই ওয়েবসাইট তৈরি করে দিয়ে টাকা ইনকাম করছে।

আপনার যদি ওয়েবসাইট তৈরি করার দক্ষতা থাকে কিংবা আপনি যদি নতুন করে ওয়েবসাইট তৈরি করা শিখেন, হতে পারে সেটি ই-কমার্স ওয়েবসাইট কিংবা পার্সোনাল ব্লগ, সেগুলো তৈরি করে দেয়ার মাধ্যমে দেশের ক্লায়েন্ট কিংবা বিদেশের ক্লায়েন্ট এর থেকে টাকা ইনকাম করতে পারবেন। প্রতিদিন 100 টাকা ইনকাম নয়, আপনি প্রতিদিন কয়েক হাজার টাকা ইনকাম করতে পারবেন এই পদ্ধতিতে।

ওয়েবসাইট বিক্রি করে টাকা ইনকাম

ওয়েবসাইট বানিয়ে বিক্রি করে দেয়ার মাধ্যমেও টাকা আয় করা যায়। একটি ওয়েবসাইট বানানো শেখার পর, ওয়েবসাইটে কন্টেন্ট পাবলিশ করে গুগল অ্যাডসেন্স এর অনুমোদন নেয়ার পর সেই ওয়েবসাইট ২০ হাজার টাকা থেকে শুরু করে লক্ষাধিক টাকায় বিক্রি করতে পারবেন। আপনার ওয়েবসাইটে যদি প্রতি মাসে ভালো পরিমাণে ভিজিটর আসে, তবু আপনি সেই ওয়েবসাইটটি বিক্রি করে দিয়ে টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

একটি অ্যাফিলিয়েট ওয়েবসাইট থেকে প্রতি মাসে যে পরিমাণ টাকা ইনকাম করা যায়, সেই ওয়েবসাইট বিক্রি করে দিলে তার ২৫ গুন টাকা পাওয়া সম্ভব। আপনার কাছে মনে হতে পারে যে, কে কিনবে আমার ওয়েবসাইট। আপনার ওয়েবসাইটে ভিজিটর থাকলে যেকোনো দেশের ক্লায়েন্ট আপনার ওয়েবসাইট কেনার জন্য হুমড়ি খেয়ে পড়বে।

সিপিএ মার্কেটিং করে টাকা ইনকাম

সিপিএ মার্কেটিং করে অনেকেই টাকা ইনকাম করছে। আপনি যদি সিপিএ মার্কেটিং করতে পারেন, তবে বিভিন্ন ওয়েবসাইট থেকে টাকা ইনকাম করতে পারবেন। সিপিএ মার্কেটিং এর অনেক সেক্টর রয়েছে। ডিজিটাল মার্কেটিং এর মাঝে যেমন অনেক কাজ রয়েছে, ঠিক তেমনি সিপিএ মার্কেটিং এর মাঝে অনেক সেক্টর রয়েছে। আপনি যেকোনো একটি কাজ করে সিপিএ মার্কেটিং করতে পারবেন। হতে পারে সেটি ইমেইল সাবমিশন কিংবা অ্যাপ ইন্সটল করানো।

আপনাকে যদি ক্লায়েন্ট বলে যে ইমেইল সাবমিশন করাতে হবে। তখন আপনি এই মানুষগুলো কোথায় পাবেন, যারা ইমেইল সাবমিশন করবে কোনো প্রকার বিনিময় ছাড়া? আপনি তো নিজের ইমেইল সাবমিশন করে সিপিএ মার্কেটিং করতে পারবেন না, কারণ, সিপিএ মার্কেটিং হয়ে থাকে দেশ ভিত্তিক। তাই, আপনাকে যে দেশের মানুষের ইমেইল সাবমিশন করাতে বলবে, সে দেশের মানুষকে দিয়ে ইমেইল সাবমিশন করিয়ে নিতে হবে।

সিপিএ মার্কেটিং করে টাকা ইনকাম করতে চাইলে আপনাকে কিছু টাকা বা বুদ্ধি খরচ করতে হবে। যেমন : মনে করুন, আপনি এখন ইমেইল সাবমিশন করিয়ে নিতে চাচ্ছেন। মানুষ তো এমনি এমনি তাদের মেইল একটি ওয়েবসাইটে গিয়ে সাবমিট করবে না। এজন্য আপনি একটি গিভওয়ের আয়োজন করতে পারেন। গিভওয়েতে বিভিন্ন অফার দিতে পারেন। যারা ইমেইল সাবমিশন করবে তাদের মাঝে কয়েকজন কিংবা সবাই কিছু গিফট পাবে। এভাবে করে মানুষ আপনার কাজগুলো করে দিবে। এতে করে তারা যেমন উপকৃত হলো, ঠিক তেমনি আপনিও আপনার ক্লায়েন্ট এর কাজ কমপ্লিট করে দিয়ে সিপিএ মার্কেটিং করে টাকা ইনকাম করে নিলেন।

এভাবে করে সিপিএ মার্কেটিং করে টাকা প্রতিদিন 100 টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

আমাদের শেষ কথা

আজকের এই পোস্টে আপনাদের সাথে প্রতিদিন 100 টাকা ইনকাম করার উপায় শেয়ার করেছি। এই পোস্টে উল্লেখ করে দেয়া পদ্ধতি অনুসরণ করে আপনি প্রতিদিন ১০০ টাকা আয় করতে পারবেন। কাজগুলো ঠিকভাবে করতে পারলে প্রতিদিন কয়েক হাজার টাকা অব্দি ইনকাম করা সম্ভব।

Leave a Comment