পোস্ট করে টাকা আয় করার সেরা ৫ উপায়

পোস্ট করে টাকা আয় করতে চান? অসম্ভব কিছু নয়। আপনি অনলাইনের মাধ্যমে শুধুমাত্র পোস্ট করেই টাকা আয় করতে পারবেন। আজকের এই পোস্টে আপনাদের সাথে এমন কিছু উপায় শেয়ার করবো, যার মাধ্যমে আপনি শুধুমাত্র পোস্ট করে প্রতি মাসে অনেক ভালো পরিমাণে টাকা ইনকাম করতে পারবেন। অনলাইনে টাকা ইনকাম করতে চাইলে, পোস্টটি সম্পূর্ণ পড়ুন।

পোস্ট করে টাকা আয়

পোস্ট করে টাকা আয়
পোস্ট করে টাকা আয়

অনেকেই অবাক হতে পারেন যে, পোস্ট করে আবার টাকা আয় করা যায় নাকি! হ্যাঁ, একটু অবাক হওয়ার মতো বিষয় হলেও সত্য এটাই যে, আপনি পোস্ট করেই টাকা ইনকাম করতে পারবেন। ফেসবুকে নিশ্চয়ই পোস্ট করেন, কিংবা টুইটারে টুইট করেন। এভাবে করে শুধু প্রতিদিন পোস্ট করেই প্রতি মাসে কয়েক হাজার টাকা থেকে শুরু করে কয়েক লক্ষ টাকা অব্দি ইনকাম করতে পারবেন।

পোস্ট করে টাকা আয় করার উপায়

পোস্ট করে টাকা ইনকাম করার অনেক উপায় রয়েছে। আপনি যদি শুধু পোস্ট করেই অনলাইন থেকে টাকা ইনকাম করতে চান, তবে নিচে উল্লেখ করে দেয়া পদ্ধতিগুলো অনুসরণ করে সহজেই টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

  • ফেসবুকে পোস্ট করে টাকা আয়
  • টুইটারে পোস্ট করে টাকা ইনকাম
  • ব্লগে পোস্ট করে টাকা আয়

উপরে যেসব পদ্ধতি উল্লেখ করে দিয়েছি, এগুলো অনুসরণ করে সহজেই প্রতি মাসে শুধু কিছু সময় ব্যয় করে পোস্ট করলেই টাকা ইনকাম করতে পারবেন। তো চলুন, এই বিষয়গুলো নিয়ে আরও বিস্তারিত জেনে নেয়া যাক।

ফেসবুকে পোস্ট করে টাকা আয়

ফেসবুক তো আমরা কমবেশি সবাই চালাই। আপনি কি আগে থেকে জানতেন যে, ফেসবুকে পোস্ট করে টাকা ইনকাম করা যায়। আমাদের মাঝে অনেকেই এটা জানে না যে, ফেসবুকে পোস্ট করে ইনকাম করা যায়। ফেসবুক পেজ তৈরি করে সেখানে পোস্ট করে কিংবা আমাদের প্রোফাইল প্রফেশনাল মোড করে পোস্ট করে ইনকাম করা সম্ভব। একটি ফেসবুক পেজ তৈরি করে সেখানে বিভিন্ন ভিডিও পোস্ট করে কিংবা কোনো পন্যের বিক্রয় পোস্ট করে পন্য বিক্রয় করে টাকা ইনকাম করা সম্ভব।

আরও পড়ুন – কোটি টাকা আয় করার উপায়

ফেসবুকে নিউজ ফিড স্ক্রল করার সময় হয়তো লক্ষ্য করেছেন, বিভিন্ন ধরণের পন্যের বিজ্ঞাপন আসে। আপনি চাইলে, এমন পন্যের বিজ্ঞাপন দিয়ে পন্য বিক্রয় করার মাধ্যমে টাকা ইনকাম করতে পারেন। কিংবা, আপনার ফেসবুক পেজে ভিডিও পোস্ট করে মনিটাইজেশন অন করে সেখানে থেকে টাকা ইনকাম করতে পারেন। অথবা, আপনি যদি ফেসবুক পেজ তৈরি না করে আপনার প্রোফাইলে পোস্ট করে অর্থ উপার্জন করতে চান, তবে প্রথমেই আপনার প্রোফাইলকে প্রফেশনাল মোড এ পরিবর্তন করে নিতে হবে।

এরপর, আপনার ফেসবুক আইডিতে যেকোনো ধরণের ভিডিও/রিলস পোস্ট করে টাকা উপার্জন করতে পারবেন। এছাড়াও, ফেসবুক থেকে ইনকাম করার আরও অনেক উপায় রয়েছে।

টুইটারে পোস্ট করে টাকা ইনকাম

টুইটার থেকে টাকা ইনকাম করার জন্য ইলন মাস্ক সম্প্রতি টুইটার ইউজারদের জন্য মনিটাইজেশন ফিচার চালু করেছে। এর মাধ্যমে যে কেউ এখন টুইটার থেকে টাকা ইনকাম করতে পারবেন। তবে, টুইটার থেকে মনিটাইজেশন পাওয়ার জন্য কিছু নিয়ম মানতে হবে। নিচে এই নিয়মগুলো উল্লেখ করে দিলাম।

  • আপনার বয়স ১৮ বছর +
  • টুইটার একাউন্ট শেষ ৩০ দিন থেকে একটিভ
  • ৫০০ ফলোয়ার রয়েছে
  • টুইটার ব্লু সাবস্ক্রিপশন নেয়া রয়েছে

উপরোক্ত সবগুলো যদি আপনার একাউন্ট এর ক্ষেত্রে প্রযোজ্য হয়, তবেই আপনি টুইটার থেকে মনিটাইজেশন পাবেন। ধরে নিলাম আপনার একাউন্টে এই সবকিছুই রয়েছে। কারণ, ৫০০ ফলোয়ার পাওয়া যেমন কঠিন কিছু না, তেমনি ৮ ডলার হলে টুইটার ব্লু সাবস্ক্রিপশন পাওয়া যাবে। এখন চলুন দেখে নেয়া যাক, কিভাবে টুইটার থেকে টাকা আয় করা যায়।

আরও পড়ুন – ৩০ হাজার টাকায় ব্যবসা

টুইটার থেকে টাকা আয় করার পদ্ধতি

টুইটার থেকে নতুন যে মনিটাইজেশন ফিচার চালু করেছে, এটির মাধ্যমে টাকা আয় করার জন্য আপনার কিছু ফলোয়ার থাকতে হবে। যারা আপনার কন্টেন্ট দেখার জন্য আপনাকে পে করবে। অর্থাৎ, আপনি যেসব টুইট করেন, সেগুলো দেখার জন্য কেউ যদি আপনাকে টুইটার এর মাধ্যমে টাকা পে করে, তবেই আপনি টুইটার থেকে পোস্ট করে টাকা আয় করতে পারবেন। যারা আপনাকে পে করবে, তাদের জন্য থাকবে আলাদা কন্টেন্ট। অর্থাৎ, যারা আপনার কন্টেন্ট দেখার জন্য টাকা দিবে, তাদেরকে আপনি আরও স্পেশাল কন্টেন্ট উপহার দিবেন।

আপনি যদি এখন টুইটারে লগিন করে কিছু সেলিব্রিটির প্রোফাইলে যান, তবে দেখবেন ফলোয়ার এর পাশাপাশি তাদের প্রোফাইলে সাবস্ক্রাইবার অপশন শো করছে। সাবস্ক্রাইবার অপশন আপনি তখনই পাবেন, যখন কেউ আপনার কন্টেন্ট দেখার জন্য পে করবে। আপনার যেসব ফলোয়ার আপনাকে পে করবে, তাদের জন্য থাকবে আলাদা ব্যাজ। যার মাধ্যমে যে কেউ বুঝতে পারবে, তারা আপনার কন্টেন্ট দেখার জন্য আপনার প্রোফাইল সাবস্ক্রাইব করেছে।

এভাবে করে টুইটারে পোস্ট করে টাকা ইনকাম করতে পারবেন। আপনার লেখা যদি অন্যদের জন্য সহযোগী হয়, তারা আপনার লেখা পড়ার জন্য টুইটারে আপনার প্রোফাইল সাবস্ক্রাইব করবে। এতে করে, আপনি প্রতিটি সাবস্ক্রাইব এর বিনিময়ে টাকা উপার্জন করতে পারবেন। তারপর থেকে, টুইটারে পোস্ট করার পরিবর্তে টাকা উপার্জন করতে পারবেন।

ব্লগে পোস্ট করে টাকা আয়

বাংলায় ব্লগিং করে আপনি একটা সময় পর প্রতি মাসে ৫০ হাজার বা ১ লাখ এর বেশি টাকা ইনকাম করতে পারবেন। শুধুমাত্র বাংলায় লেখালেখি করেই। ব্লগিং করে ইনকাম করতে চাইলে আপনাকে প্রথমেই একটি ওয়েবসাইট বানাতে হবে। ওয়েবসাইট বানাতে প্রয়োজন হবে একটি ডোমেইন এবং হোস্টিং। এরপর হোস্টিং এবং ডোমেইন কানেক্ট করে ওয়ার্ডপ্রেস ইন্সটল করে লেখালেখি করতে হবে। এক্ষেত্রে আপনি ওয়ার্ডপ্রেস ব্যবহার না করে চাইলে গুগলের ব্লগার ব্যবহার করতে পারেন। সেক্ষেত্রে আপনাকে শুধুমাত্র ডোমেইন কিনতে হবে। (আপনি চাইলে সাবডোমেইন দিয়েও ব্লগিং করতে পারবেন। সম্পূর্ণ ফ্রীতেই)

ব্লগিং করে আয় করতে হলে আপনাকে এমন সব বিষয় নিয়ে লেখালেখি করতে হবে, যেগুলো জানার জন্য মানুষ গুগলে সার্চ করে থাকে। যেমন : অনলাইনে টাকা ইনকাম করার উপায়, ব্লগিং করে টাকা ইনকাম করার উপায়, কিভাবে ইউটিউব একাউন্ট খুলতে হয় ইত্যাদি। এমন বিষয় নিয়ে লেখা যাবে না, যেটি লিখে মানুষ গুগলে সার্চ করে না। তাহলে আপনার পরিশ্রম বৃথা হয়ে যাবে।

আবার, শুধু লিখলেই নয়। আপনার লেখাগুলো হতে হবে এসইও অপ্টিমাইজড। এসইও আবার কি? এসইও (SEO) হচ্ছে সার্চ ইঞ্জিন অপ্টিমাইজেশন। অর্থাৎ, আপনাকে এমনভাবে লিখতে হবে, যেন আপনার লেখাগুলো মানুষের কাছে পৌঁছায়। ধরুন, আপনি একটি কন্টেন্ট লিখেছেন আপনার ওয়েবসাইটে, কিভাবে ঘরে বসে টাকা আয় করা যায়।  এখন কেউ যদি গুগলে এসে সার্চ করে “কিভাবে ঘরে বসে টাকা আয় করা যায়”, তবে আপনার লেখা যেন তার কাছে শো করে, সেটি করতে যা যা করা প্রয়োজন, সবকিছুই এসইও এর অন্তর্ভুক্ত।

ধরে নিলাম আপনি আপনি ডোমেইন, হোস্টিং কিনেছেন, এবং এসইও করে লেখালেখি করছেন এবং মানুষ আপনার ওয়েবসাইটে এসে লেখা পড়ছে। তাহলে প্রশ্ন হচ্ছে, ব্লগ পোস্ট করে টাকা আয় করবো কিভাবে? ইনকাম করার জন্য আপনি আপনার ওয়েবসাইটে বিজ্ঞাপন দেখাতে পারেন কিংবা বিভিন্ন পন্য বিক্রি করতে পারেন। বিজ্ঞাপন দেখিয়ে ওয়েবসাইট থেকে ব্লগিং করে আয় করতে চাইলে আপনি গুগল এডসেন্স কিংবা অন্য এড নেটওয়ার্ক এর এড ব্যবহার করতে পারেন। এছাড়া, আপনি বিভিন্ন ই-কমার্স সাইটের পন্যের রেফারেল লিংক আপনার ওয়েবসাইটে শেয়ার করতে পারেন। সেই লিংক থেকে যদি কেউ পন্য কিনে, তবে আপনি নির্দিষ্ট পরিমাণে কমিশন পাবেন। এভাবে করেই আপনি ব্লগিং করে আয় করতে পারবেন।

আমাদের শেষ কথা

আজকের এই পোস্টে আপনাদের সাথে পোস্ট করে টাকা আয় করার উপায় নিয়ে আলোচনা করেছি। উপরে যেসব পদ্ধতি শেয়ার করেছি, এগুলো অনুসরণ করে অনেক সহজেই টাকা ইনকাম করতে পারবেন। পোস্টটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করতে পারেন।

Leave a Comment