দৈনিক ১০০০ টাকা ইনকাম করুন ঘরে বসে

দৈনিক ১০০০ টাকা ইনকাম করুন ঘরে বসেই। কী বিশ্বাস হচ্ছে না তো? আপনার মতো অনেকেই ঘরে বসে টাকা ইনকাম করতে চান। কিন্তু, সঠিক দিকনির্দেশনা না পাওয়ার কারণে অনলাইনে টাকা ইনকাম করতে পারেন না। কিন্তু, সঠিক নির্দেশনা পেলে আমরা সবাই অনলাইনে ঘরে বসে ডেইলি ১০০০ টাকা ইনকাম করতে পারি। অনেক ক্ষেত্রে এই ইনকাম এর পরিমাণ বেশিও হয়ে থাকে। নির্ভর করে আমরা ঠিক কত সময় দিচ্ছি এবং কাজ সঠিকভাবে করছি কী না।

আজকের এই পোস্টে আপনাদের সাথে এমন কিছু অনলাইনে টাকা ইনকাম করার উপায় নিয়ে আলোচনা করবো, যেগুলো অনুসরণ করে অনেকেই প্রতিদিন হাজার এর অধিক টাকা ইনকাম করছে। আপনি যদি সঠিক নিয়মে কাজ করতে পারেন, তবে প্রতিদিন ১০০০ টাকা থেকে শুরু করে প্রতি মাসে ৩০ হাজার এর অধিক টাকা ইনকাম করতে পারবেন। তো চলুন, শুরু করা যাক।

দৈনিক ১০০০ টাকা ইনকাম

দৈনিক ১০০০ টাকা ইনকাম
দৈনিক ১০০০ টাকা ইনকাম

সঠিক উপায়ে এবং সঠিক পদ্ধতি অনুসরণ করে আমরা সবাই অনেক সহজেই দৈনিক ১ হাজার টাকা ইনকাম করতে পারি। অনেকেই অনলাইন থেকে টাকা ইনকাম করার স্বপ্ন দেখে থাকেন, কিন্তু জানেন না যে কীভাবে শুরু করতে হবে বা কী কাজ শিখলে অনলাইন থেকে টাকা আয় করতে পারবেন। অনলাইনে কাজ করার আগে আমাদের কাজ শিখতে হবে। তবেই সেই কাজ করে লম্বা সময় আমরা টাকা ইনকাম করতে পারবো।

অনেকেই আপনাকে অল্প সময়ে টাকা ইনকাম করার শর্টকাট পদ্ধতি বলবে। সেগুলো থেকে ইনকাম করতে তো পারবেন না বরং প্রতারনার শিকার হওয়ার সম্ভাবনা অনেক বেশি। তাই, অনলাইন থেকে কাজ করে টাকা ইনকাম করার জন্য আমাদের সেই কাজ শিখতে হবে। এই পোস্টে আমি এমন কিছু পদ্ধতি বা মাধ্যম আপনাদের সাথে শেয়ার করবো, যেগুলো থেকে আমাদের দেশের এবং বিশ্বের অনেক দেশের মানুষ ঘরে বসে টাকা ইনকাম করে থাকেন।

তো চলুন, দেখে নেয়া যাক, ডেইলি ১০০০ টাকা ইনকাম করার পদ্ধতিগুলো।

দৈনিক ১০০০ টাকা ইনকাম করার মাধ্যম

দৈনিক ১০০০ টাকা ইনকাম করার অনেক মাধ্যম রয়েছে। কিন্তু, আমি আপনাদের সাথে যেসব মাধ্যমে শেয়ার করবো, সেগুলো থেকে আপনি কাজ করে প্রতিদিন টাকা উত্তোলন করতে পারবেন।এছাড়াও, অনেক জায়গায় কাজ করে পেমেন্ট দেয় না, এমন কিছু হবে না। কারণ, আপনি প্রতিদিনের টাকা প্রতিদিন তুলতে পারবেন। এছাড়াও, যেসব পদ্ধতি আপনাদের সাথে শেয়ার করবো, সেগুলো থেকে আমাদের দেশের অনেকেই টাকা ইনকাম করছে।

তো চলুন, দেখে নেয়া যাক ডেইলি ১০০০ টাকা ইনকাম করার মাধ্যমগুলো।

  • সিমের অফার বিক্রি করে টাকা ইনকাম
  • গুগল এডমব থেকে টাকা ইনকাম
  • নগদ থেকে টাকা ইনকাম
  • ইমেইল মার্কেটিং করে টাকা ইনকাম
  • অনলাইন সার্ভে করে টাকা ইনকাম

উপরের তালিকায় যেসব মাধ্যম উল্লেখ করে দিয়েছি, এগুলো থেকে আপনি অনেক সহজেই দৈনিক ১০০০ টাকা ইনকাম করা থেকে শুরু করে প্রতি মাসে ৩০,০০০ টাকা অব্দি আয় করতে পারবেন। শুরুর দিকেই ৩০,০০০ টাকা আয় এবং এই কাজগুলো যদি সঠিকভাবে করতে পারেন, তবে প্রতি মাসে ৫০ হাজার থেকে শুরু করে লক্ষাধিক টাকা ইনকাম করা অনেক সহজ।

আরও পড়ুন – দৈনিক ৫০০ টাকা ইনকাম করার উপায়

তো চলুন, উপরে উল্লিখিত পদ্ধতিগুলো থেকে কীভাবে ডেইলি ১০০০ টাকা ইনকাম করা যায়, সে বিষয়ে আলোচনা করা যাক।

সিমের অফার বিক্রি করে টাকা ইনকাম

আমরা সিম দিয়ে যদি ইন্টারনেট ব্যবহার করতে চাই, তখন আমাদের এমবি অফার ক্রয় করতে হয়। কারো সাথে দীর্ঘক্ষণ কথা বলার প্রয়োজন হলে কিংবা প্রতি মাসে অনেক কথা বলা লাগলে মিনিট প্যাক কিনতে হয়। কম দামে এসব মিনিট অফার, এমবি অফার কিনতে চাইলে আমাদেরকে বিভিন্ন রিটেইলার এর কাছে যেতে হবে। আপনি যদি একজন রিটেইলার হতে পারেন, তবে মানুষকে বিভিন্ন সিমের অফার বিক্রি করে টাকা উপার্জন করতে পারবেন। এক্ষেত্রে, প্রতিটি প্যাকেজ বিক্রি করার বিনিময়ে আপনাকে কমিশন দিবে। এভাবে করেই অফার বিক্রি করে টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

নিচে উল্লিখিত অফারগুলো বিক্রি করে আপনি কমিশন পাবেন। 

  • মিনিট অফার
  • ইন্টারনেট অফার
  • এসএমএস অফার
  • এমএমএস অফার

অনেকেই মিনিট অফার, ইন্টারনেট অফার, এসএমএস অফার কিনে থাকে। আপনি যদি বাংলাদেশের কোনো কোম্পানির থেকে বিভিন্ন অফার কিনে থাকেন, তবে হয় নিশ্চয়ই দেখেছেন যে এসব অফার এর দাম সর্বদা অনেক বেশি থাকে। তবে, রিটেইলার এর থেকে বিভিন্ন অফার ক্রয় করা যায় অনেক কম দামে। তাই অনেকেই রিটেইলার এর থেকে বিভিন্ন অফার ক্রয় করে থাকে। আপনি চাইলে রিটেইলার ব্যবসা করে টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

গুগল এডমব থেকে টাকা ইনকাম

গুগল অ্যাডসেন্স এর মতো গুগল অ্যাডমব হচ্ছে একটি এড নেটওয়ার্ক। কিন্তু, গুগল অ্যাডমব দিয়ে আপনি শুধু অ্যাপ এর ভিতর বিজ্ঞাপন দেখাতে পারবেন। অনেকেই বিভিন্ন ধরণের অ্যাপ তৈরি করে অ্যাপ এর ভিতর বিজ্ঞাপন যুক্ত করে টাকা ইনকাম করে থাকে। আপনিও এমন একটি অ্যাপ তৈরি করে তার ভিতর বিজ্ঞাপন যুক্ত করে টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

অ্যাপ এর ভিতর বিজ্ঞাপন দেয়ার জন্য গুগল অ্যাডমব থেকে বিজ্ঞাপন নিতে পারেন। এতে করে আপনি অনেক সহজেই গুগল অ্যাডমব থেকে টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

গুগল এডমব থেকে ইনকাম করতে চাইলে আপনার একটি অ্যাপ থাকতে হবে। আপনি যদি একজন অ্যাপ ডেভেলপার হয়ে থাকেন, তবে যেকোনো অ্যাপ বানিয়ে সেখানে গুগল এডমব এর আবেদন করে অনুমোদন নিয়ে আপনার অ্যাপের ভিতর গুগল এডমব এর এড দেখিয়ে টাকা ইনকাম করতে পারেন। এজন্য আপনাকে অবশ্যই অ্যাপ বানানো জানতে হবে। আপনি যদি একজন অ্যাপ ডেভেলপার হয়ে থাকেন, তবে সেটি ভিন্ন কথা। কিন্তু, আপনি যদি না জেনে থাকেন যে, কিভাবে অ্যাপ বানাতে হয়, তবে নিচে দেয়া ওয়েবসাইট গুলো থেকে ফ্রিতেই অ্যাপ বানিয়ে নিতে পারবেন।

  • www.appsgeyser.com
  • www.appyet.com
  • www.mobincube.com
  • www.andromo.com
  • www.thunkable.com

উপরোক্ত ওয়েবসাইট গুলো ভিজিট করে আপনি আপনার পছন্দ মতো যেকোনো অ্যাপ বানিয়ে নিতে পারবেন। এরপর, সেই অ্যাপ এর ভিতর গুগল এডমব এর এড সেট করে অ্যাপ প্লে স্টোর কিংবা অন্য কোনো অ্যাপ স্টোর এ পাবলিশ করতে হবে। মানুষ অ্যাপ ব্যবহার করা শুরু করলে আপনার অ্যাপ এর ভিতর থেকে মানুষ যতবার এড দেখবে এবং এড এর উপর ক্লিক করবে, তার উপর ভিত্তি করে আপনাকে টাকা দিবে গুগল এডমব।

নগদ থেকে টাকা ইনকাম

বিকাশের মতো করে আপনি চাইলে নগদ থেকেও টাকা ইনকাম করতে পারবেন। নগদ এজেন্ট নিয়ে কিংবা নগদ অ্যাপ রেফার করে নগদ থেকে টাকা ইনকাম করতে পারবেন। এছাড়াও, এখন নগদ এর ক্যাশব্যাক এবং গাড়ি, বাইক, মোবাইল, ফ্রিজ ইত্যাদি ক্যাম্পেইন চলছে। এগুলো থেকেও আপনি টাকা ইনকাম করতে পারবেন। নগদ থেকে যেসব উপায়ে টাকা ইনকাম করতে পারবেন, তার একটি তালিকা উল্লেখ করে দিলাম।

  • নগদ অ্যাপ থেকে পেমেন্ট করে ক্যাশব্যাক
  • বিভিন্ন অফার থেকে ক্যাশব্যাক
  • নগদ অ্যাপ রেফার করে টাকা ইনকাম
  • নগদ এজেন্ট হয়ে টাকা ইনকাম

নগদ অ্যাপ থেকে পেমেন্ট করার মাধ্যমে অনেক শপ থেকে অফার থাকায় ক্যাশব্যাক দেয়। এই মাধ্যমে টাকা ইনকাম করতে পারেন। বন্ধু এবং পরিবারের সাথে নগদ অ্যাপ রেফার করে টাকা ইনকাম করতে পারেন। নগদ অ্যাপ রেফার করে দৈনিক ১০০০ টাকা ইনকাম করতে পারবেন। এছাড়াও, নগদ থেকে অনেক অফার দেয়, সেগুলো থেকেও ইনকাম করতে পারেন।

আমাদের শেষ কথা

আজকের এই পোস্টে আপনাদের সাথে দৈনিক ১০০০ টাকা ইনকাম করার উপায় নিয়ে আলোচনা করেছি। আপনি যদি ডেইলি ১০০০ টাকা ইনকাম করতে চান, তবে এই পোস্টটি আপনার জন্য অনেক সহায়ক হবে বলে আশা করছি।

Leave a Comment